এফডিসিতে সকালে মানববন্ধনের ডাক

12
এফডিসিতে সকালে মানববন্ধনের ডাক

বিনোদন ডেস্ক: এবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানের বিরুদ্ধে রাস্তায় নামছে চলচ্চিত্র শিল্পীরা। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ১৮২ জন অভিনয় শিল্পীর ভোটাধিকার কেড়ে নিয়েছেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান।

এমন অভিযোগে আজ রোববার (১৯ জুলাই) ভোটাধিকার হারানো শিল্পীরা সমিতির দায়িত্ব থেকে জায়েদ খানের অপসারণ চেয়ে মানবন্ধনের ডাক দিয়েছেন।

রোববার বেলা ১১টায় এফডিসির গেটের সামনে তারা মানবন্ধনে অংশ নেবেন বলে জানা গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক অভিনয়শিল্পী বলেন, ‘যারা সিনেমায় ছোট চরিত্রে অভিনয় করেন তারাও শিল্পী। তাদের বাদ দিয়ে সিনেমা হয় না। অথচ জায়েদ খান তাদের অপমান করে ভোটাধিকার করে নিয়েছে। যা এর আগে কেউ করার সাহস করেনি। সে তার বিরোধী মতের লোক পছন্দ করে না। বারবার আমরা ভোটাধিকার চেয়েছি। এতদিনেও এর কোনো সমাধান করেননি তিনি। তাই বাধ্য হয়ে মানববন্ধন করতে হচ্ছে।’

উল্লেখ্য যে, ২০১৭-১৮ সালের শিল্পী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচনে সমিতির মোট ভোটার সংখ্যা ছিল ৬২৪ জন। মিশা সওদাগর-জায়েদ খান প্যানেল বিজয়ী হওয়ার পর এ তালিকা থেকে ১৮১ জন ভোটারের ভোটাধিকার বাতিল করে কেবল সহযোগী সদস্য করা হয়েছে।

নতুন করে ২০ জন শিল্পীকে নতুন ভোটার করা হয়। এ যোগ বিয়োগের পর শিল্পী সমিতির ২০১৯-২০ মেয়াদের নির্বাচনে মোট ভোটারের সংখ্যা ছিলো ৪৪৯ জন।

এদিকে আজ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতিতেও এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। গেল ১৫ জুলাই চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি মিশা সওদাগর ও সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খানকে বয়কটের ঘোষণা দেয় চলচ্চিত্রের ১৮টি সংগঠন।

চলচ্চিত্রের স্বার্থবিরোধী কার্যকলাপে জড়িত থাকার অভিযোগে তাদের দুজনকে বয়কট করা হয় বলে জানিয়েছেন প্রযোজক ও পরিচালক সমিতির একাধিক নেতাকর্মী। এ বিষয়েই শিল্পী সমিতি তাদের আনুষ্ঠানিক বক্তব্য দেবে আজ বিকেল সাড়ে ৪টায়।।এফডিসির শিল্পী সমিতির অফিসে এটি অনুষ্ঠিত হবে।

এ প্রসঙ্গে সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান বলেন, ‘আমাকে আর মিশা ভাইকে নিয়ে কেন এমন সিদ্ধান্ত নেয়া হলো, সংগঠনগুলোর কাছে তার সুনির্দিষ্ট জবাব চাইবো। তাছাড়া চলচ্চিত্রের স্বার্থবিরোধী কী করেছি সেটাও সঠিকভাবে জানতে চাই। আমাদের সব সিদ্ধান্তও জানাবো।’

আপনার মন্তব্য