করোনার টিকায় স্বাভাবিক হবেনা জনজীবন!

15
ভ্যাকসিন থেকে বহু দূরে বাংলাদেশ

ফিচার ডেস্ক: করোনার কোনো কার্যকর টিকা সহজলভ্য হলেও সহসাই তা মানুষের জীবনযাপনকে স্বাভাবিক পর্যায়ে নিতে পারবে না বলে সতর্কবার্তা দিয়েছেন যুক্তরাজ্যের একদল শীর্ষস্থানীয় গবেষক। তারা বলছেন, আগামী বছরের মে মাসের আগে স্বাভাবিক হবে না বৈশ্বিক পরিস্থিতি। 

এদিকে যুক্তরাষ্ট্রে তেসরা নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগেই করোনার ভ্যাকসিন বাজারে আসবে বলে আবারও আশা ব্যক্ত করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। বৃহস্পতিবার তিনি সাংবাদিকদের বলেন, খুব শিগগির মহামারি কাটিয়ে স্বাভাবিক পরিস্থিতিতে ফিরবে পৃথিবী।

কিন্তু ভ্যাকসিন উৎপাদনে এগিয়ে থাকা প্রতিষ্ঠান মর্ডানা জানিয়েছে, ভ্যাকসিন সরবরাহ শুরু করতে অন্তত ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত সময় লাগবে প্রতিষ্ঠানটির। ইতোমধ্যেই তিন স্তরের ট্রায়ালে ইতিবাচক ফলাফল মিলেছে দাবি করে মর্ডানা কর্তৃপক্ষ জানায়, চূড়ান্ত পর্বেও আশানুরূপ ফলাফল পাওয়া গেলে বিস্তারিত তথ্য পাঠানো হবে মার্কিন ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনে।

করোনার ভ্যাকসিন হিসেবে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম স্বীকৃতি পাওয়া রাশিয়ার স্পুটনিক ফাইভ প্রথম বিদেশি নাগরিক হিসেবে গ্রহণ করেছেন বেলারুশের ১০০ স্বেচ্ছাসেবকের একটি দল। বর্তমানে তারা নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

চীনা প্রতিষ্ঠান সিনোভ্যাক বায়োটেক লিমিটেডের তৈরি ভ্যাকসিনের ৪ কোটি ৬০ লাখ ডোজ পেতে প্রতিষ্ঠানটির সঙ্গে ৯ কোটি ডলারের চুক্তি করেছে ব্রাজিলের সবচেয়ে জনবহুল শহর সাও পাওলো কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে, রাশিয়ার স্পুটনিক ফাইভ পেতে চুক্তির চেষ্টা করছে দেশটির বাহিয়া ও পারানা রাজ্যের গভর্নর।

বিশ্বে বর্তমানে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির দৌড়ে রয়েছে বিভিন্ন দেশের দুই শতাধিক প্রতিষ্ঠান। আর সব দেশই তা পেতে রয়েছে মুখিয়ে। তবে যুক্তরাজ্যের রয়েল সোসাইটির সঙ্গে যৌথভাবে এক প্রতিবেদনে দীর্ষস্থানীয় একদল গবেষক সতর্কবার্তা দিয়ে জানান, ভ্যাকসিনের সহজ প্রাপ্যতা নিশ্চিত করা গেলেও কয়েক মাসের মধ্যে সবাইকে এর আওতায় আনা সম্ভব হবে না, এটাই বাস্তবতা।

তাই কার্যকর কোনো ভ্যাকসিন সহজলভ্য হলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক পর্যায়ে ফিরতে অন্তত আগামী বছরের মে পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হতে পারে বলে উল্লেখ করা হয় ওই প্রতিবেদনে।

আপনার মন্তব্য