কিশোর গ্যাং সদস্যদের ধরতে সর্বাত্মক অভিযান আরএমপির

17
আরো ৩৫ তরুণ আটক, মুচলেকায় ছাড়

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীতেও ছড়িয়ে পড়েছে কিশোর গ্যাং। নগরীর পাড়া-মহল্লায় এই গ্যাং সদস্যদের অপরাধ বেড়েই চলেছে। এদের ধরতে সর্বাত্মক অভিযান শুরু করেছে রাজশাহী মহানগর পুলিশ (আরএমপি)।

শুক্রবার রাতে নগর পুলিশের ১২ থানা এলাকা থেকে এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে কিশোর গ্যাং এর ৫৬ সদস্যকে। যাচাই বাছাই শেষে এদের ৩২ জনকে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে অভিভাবকের জিম্মায়। বাকিদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্থা নিয়েছে আরএমপি।

নগর পুলিশ সূত্র জানাচ্ছে, দিনে দিনে ভয়ঙ্কর হয়ে উঠেছে কিশোর গ্যাং। তারা পাড়া মহল্লার প্রভাবশালী, মাস্তান বা বড় ভাইদের হয়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে জড়িয়ে পড়ছে। কিশোর গ্যাং এর সদস্যরা একসাথে মাদক সেবন, পাড়া-মহল্লায় নারীদের উত্ত্যাক্ত করা করছে।

ছোটখাটো ঘটনাকে কেন্দ্র করে মারামারি ও ঝগড়া বিবাদে জড়িয়ে পড়ছে কিশোর গ্যাং সদস্য। এসব ক্ষেত্রে অনেক সময় খুন-ধর্ষণের মত ঘটনাও ঘটছে।


আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, কিশোর গ্যাং এর সদস্য অপরাধ করার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে বিভিন্ন গ্রুপ তৈরি করে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ স্থাপন করছে। একজোট হয়ে অপরাধের পরিকল্পনাও করছে তারা।

এই পরিস্থিতিতে কিশোর গ্যাং ও কিশোর অপরাধীদের বিরুদ্ধে আরএমপি সর্বাত্মক অভিযান শুরু করেছে। শুক্রবার দিবাগত রাতে কিশোর গ্যাং সদস্যদের ধরতে ১২ থানা এলাকায় সাঁড়াসি অভিযান চালায় নগর পুলিশ। আটক করা হয় এসব গ্যাং এর ৫৬ সদস্যকে।

অপকর্মে জড়াবে এমন শর্তে মুচলেকা নিয়ে এদের ৩২ জনকে পরিবারের জিম্মায় ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বাকিদের বিরুদ্ধে আইনত ব্যবস্তা নেয়া হয়েছে।

এ সমস্ত কিশোর গ্যাং সদস্যদের অন্য কোন অপরাধে জড়িত থাকার প্রমাণ পাওয়া গেলে তাদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। জননিরাপত্তায় নগরীতে আরএমপির এই অভিযান চলবে বলে জানান গোলাম রুহুল কুদ্দুস।
 

আপনার মন্তব্য