কোহলিদের সামনে লজ্জার ইতিহাস!

3
কোহলিদের সামনে লজ্জার ইতিহাস!

খেলাধুলা ডেস্ক: ভারতীয় ক্রিকেট দলের জন্য ২০২০ সালটা মোটেও সুখকর নয়। চলতি মাসেই অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বোর্ডার-গাভাস্কার ট্রফির অ্যাডিলেইড টেস্টে নিজেদের ইতিহাসের সর্বনিম্ন ৩৬ রানে অলআউট হয়েছে তারা। এর আগে চলতি বছর নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে হয়েছে হোয়াইটওয়াশ।

২০২০ সালে ভারতের হাতে বাকি রয়েছে একটিমাত্র টেস্ট ম্যাচ। শনিবার (২৬ ডিসেম্বর) মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে জমজমাট বক্সিং ডে টেস্টে মুখোমুখি হবে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া ও ভারত। এই ম্যাচেও যদি প্রথম ম্যাচের ফলাফলের পুনরাবৃত্তি ঘটে, তাহলে লজ্জার ইতিহাস গড়বে ভারত।

করোনায় জর্জরিত এ বছরটিতে এখনও পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে জয়ের দেখা পায়নি ভারত। মেলবোর্নে তারা যদি ন্যুনতম ড্র’ও করতে না পারে, তাহলে নিজেদের ৮৮ বছরের টেস্ট ইতিহাসে প্রথমবারের মতো কোনো বছরের (অন্তত ৩ ম্যাচ খেলা বছরের মধ্যে) সব ম্যাচ হারের লজ্জার রেকর্ড গড়বে ভারত। এ রেকর্ড এড়াতে ন্যুনতম ড্র করতে হবে তাদের।

তবে সবমিলিয়ে এটিই প্রথম হবে না। এর আগে ১৮ বার কোনও নির্দিষ্ট পুরো বছরের সবকয়টি ম্যাচ হারের লজ্জায় পড়েছে। এ তালিকায় সবার ওপরের নামটি বাংলাদেশের, তারা ৫টি ভিন্ন বছর সব টেস্ট হেরেছে। জিম্বাবুয়ে, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা হেরেছে ৩ বছর। ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও শ্রীলঙ্কা এক বছর সবকয়টি টেস্টে হেরেছে।

এবার ১৯তম দল হিসেবে এ লজ্জার রেকর্ডের সামনে ভারত। তবে মেলবোর্নের ম্যাচে তারা যদি ড্র’ও করে, তাহলে চলতি শতকে প্রথমবারের মতো এমন হবে, যে বছরে কোনও জয় পায়নি ভারত। এটি এড়ানোর জন্য মেলবোর্ন টেস্টে জয়ের বিকল্প নেই ভারতের সামনে।

এক্ষেত্রে তাদের অনুপ্রেরণা হতে পারে মেলবোর্নে সবশেষ ম্যাচের স্মৃতি। ২০১৮ সালের সফর মেলবোর্ন টেস্টে ১৩৭ রানের সহজ জয় পেয়েছিল ভারত। যদিও মেলবোর্নে সবমিলিয়ে ১৩ ম্যাচ খেলে তিনটির বেশি জিততে পারেনি তারা। তার ওপর এখন দলের সঙ্গে নেই অধিনায়ক বিরাট কোহলিও।

ফলে কাজটি মোটেও সহজ হবে না ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক অজিঙ্কা রাহানের দলের জন্য। বিশেষ করে দুই দলের মুখোমুখি পরিসংখ্যানও যখন স্বাগতিকদের পক্ষে। মেলবোর্নে নিজেদের মধ্যকার ১০০তম টেস্ট ম্যাচটি খেলবে এ দুই দল। এপর্যন্ত খেলা ৯৯ ম্যাচে অসিদের জয় ৪৩, ভারত জিতেছে ২৮ আর ড্র হয়েছে ২৭ ম্যাচ। টাই হয়েছে অন্যটি।

আপনার মন্তব্য