খাস জমি দখল করে ফ্লাটবাড়ী নির্মানের অভিযোগ

16
খাস জমি দখল করে ফ্লাটবাড়ী নির্মানের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার, দুর্গাপুর: দুর্গাপুর পৌর এলাকার দেবীপুর গ্রামের ঝোপদুয়ারপাড়ায় রাস্তার ধারে সরকারী খাস জমি দখল করে দছিম উদ্দিন নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ফ্লাটবাড়ী নির্মানের অভিযোগ উঠছে।

স্থানীয় ভুমি অফিসের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গিয়ে নিষেধ করলেও তারা কৌশলে ফ্লাট নির্মান করেই চলেছেন। সরকারি জায়গা দখল করে ঘর নির্মাণ করায় এলাকাবাসীর মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।


স্থানীয়দের অভিযোগের ভিত্তিতে সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, দুর্গাপুর পৌর এলাকার দেবীপুর গ্রামের ঝোপদুয়ার পাড়ায় রাস্তা সংলগ্ন প্রায় ২০শতক সরকারী খাস জমি রয়েছে।

অনেকই আগে ওই এলাকার দছিম উদ্দিন নামের একব্যক্তি পুরো খাস জমি দখল নেন। এরপর তিনি প্রায় ১০শতক জায়গায় আগেই বাড়ী নির্মান করেন।

গত কয়েক দিন আগ থেকে বাকি প্রায় ১০শতক খাস জায়গাও ফ্লাট বাড়ি নির্মানের ভিত্তি প্রস্তর করেছেন। ওই এলাকার লোকজন বাধা প্রয়োগ করলেও তা তিনি কোন কর্ণপাত করছেন না।

দছিম উদ্দিন প্রশাসনের চোঁখ ফাকি দিতে পুরো সরকারী খাস জায়গা আগেই টিন দিয়ে ঘিরে ফেলেছেন। আর ভিতরে চলছে ফ্লাট বাড়ী নির্মানের কাজ।

স্থানীয়দের অভিযোগ, সরকারী জায়গায় বাড়ী নির্মানে উজালখলসী ভুমি অফিসের লোকজনের সাথে তার যোগসাজস রয়েছে। এলাকার লোকজন যখন ভুমি অফিসে অভিযোগ দিচ্ছেন, তখন তারা ঘটনাস্থলে এসে নামমাত্র নিষেধ করে যাচ্ছেন। ঘটনাস্থল থেকে কর্মকর্তারা চলে যাবার পর তারা আবার কাজ শুরু করছেন।


উজালখলসী ইউনিয়ন সহকারী ভূমি কর্মকর্তা আব্দুল ওয়াহেদ জানান, সরকারী খাস জায়গায় বাড়ী নির্মান হচ্ছে এমন অভিযোগ পাওয়ার পর আমি ঘটনাস্থলে এসে কাজ বন্ধ করে দিয়ে ছিলাম।

এ বিষয়ে উপজেলা ভূমি সহকারী কমিশনারকেও জানানো হয়েছে। আজ রোববার উপজেলা সহকারী কমিশনার ভূমি বরাবরে তারা সরকারী জায়গা বাড়ী নির্মান করবেন মর্মে আবেদন করেছেন বলে শুনেছি। এজন্য তারা বাড়ির কাজ বন্ধ রেখেছেন।

জানতে জানতে উপজেলা সহকারী (ভূমি) কমিশনার শুভ দেবনাথ বলেন, এ বিষয়ে আমার জানা নেই। এই প্রথম শুনলাম। আমি পূঁজার ছুটিতে রয়েছি। তবে তাৎক্ষনিক স্থানীয় ভূমি অফিসকে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নিতে নিদেশ দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

আপনার মন্তব্য