গভীর রাতে দু’দল গ্রামবাসীর সশস্ত্র সংঘর্ষ

23
গভীর রাতে দু’দল গ্রামবাসীর সশস্ত্র সংঘর্ষ

পাবনা: পাবনার ভাঙ্গুড়ায় গভীর রাতে ধারালো অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়েছে দু’দল গ্রামবাসী। বুধবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের নুরনগরে এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে নারীসহ উভয়পক্ষে অন্তত: ১৫ জন আহত হয়েছেন।

আহত ব্যক্তিদের মধ্যে- মুন্নাফ (৩৮), হাফিজুর রহমান (৪২), হযরত আলী (৪৮), গফুর (৪৭), হাবিব (৩৫), জাকিরুল (৩৫) ও রুবেল প্রামাণিককে (৫০) ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়েছে।

এছাড়া গুরুতর আহতাবস্থায় ফরিদা পারভীন (৫০), আরিফুল (২৮), জাহাঙ্গীর (২৯), আল আমিন (২৮), হেলাল (৩৫), আজাহার আলী (৩৮), জিন্নাত (২৯) ও সেলিমকে (৩৭) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও এলাকাবাসী জানিয়েছে, উপজেলার অষ্টমনিষা ইউনিয়নের নুরনগর গ্রামের আব্দুর রহমান ও হযরত আলীর মধ্যে একটি জায়গা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। এ নিয়ে এর আগেও দুপক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়।

এরই জের ধরে বৃহস্পতিবার রাত ৩টার দিকে ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে উভয়পক্ষ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এতে নারীসহ ১৫ জন আহত হন।

এ ঘটনার পর আব্দুর রহমান থানায় লিখিত অভিযোগ দিলেও অপরপক্ষ কোনো অভিযোগ দেয়নি।

জানা যায়, এ নিয়ে পূর্বে স্থানীয় নেতা ও থানা পুলিশ একাধিকবার আপস মীমাংসায় ব্যর্থ হওয়ায় হযরত আলী পাবনা জজ কোর্টে মামলা দায়ের করেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে ভাঙ্গুড়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আসিফ মোহাম্মদ সিদ্দিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

আপনার মন্তব্য