চলতি মাসেই পুঠিয়ায় আ’লীগের সম্মেলন

5
চলতি মাসেই পুঠিয়ায় আ’লীগের সম্মেলন

এইচ এম শাহনেওয়াজ: চলতি মাসেই রাজশাহীর পুঠিয়া উপজেলা ও পৌর আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। তবে এই সম্মেলনের জন্য আগামী দু’একদিনের মধ্যে চুড়ান্ত দিনক্ষন নিধারণ করা হবে বলে জানিয়েছেন দলীয় নেতাকর্মীরা। গত ১ ডিসেম্বর এই সম্মেলন আয়োজনের কথা থাকলেও পৌরসভা নির্বাচনের কারণে শেষ মুহুর্তে তা স্থগিত হয়ে যায়। তৃর্ণমুল নেতাকর্মীরা আশা করছেন সুষ্ঠ ও সফল ভাবে সম্মেলনের মধ্যে দিয়ে দলের মধ্যে দীর্ঘদিনের লবিং-গ্রুপিংয়ের অবসান ঘটবে।

দলীয় সূত্রে জানাগেছে, নানা বিতর্কেতর মধ্যে দিয়ে গত ৮ বছর আগে শেষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। পর থেকে দলে নেতাকর্মীদের মধ্যে দ্ব›দ্ব ও বিভক্তি শুরু হয়। দীর্ঘদিনের এই বিভক্তির অবসান ঘটাতে কেন্দ্রের নির্দেশে গত বছর ১ ডিসেম্বর উপজেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করার কথা ছিল। সে মোতাবেক দলের নেতাকর্মীরা সম্মেলনের সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেন। তবে শেষ মুহুতে পৌর নির্বাচনের কারণে তা স্থগিত হয়ে যায়। এদিকে সম্মেলন ঘিরে বর্তমান উপজেলা কমিটির কোনো অভিযোগ না থাকলেও অপরপক্ষ (উপজেলা আ’লীগের কথিত আহবায়ক কমিটি) আগে সদস্য নবায়ন, ওয়ার্ড ও ইউনিয়নের সম্মেলন করার পক্ষে রয়েছেন। এদিকে আগামী ২০ মার্চ উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হতে পারে মর্মে সকল প্রস্তুতি নেয়া শুরু হয়েছে। আর উপজেলার কিছুদিন পরেই পৌর সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে।

তৃর্ণমূল নেতাকর্মীরা বলছেন, দলের মধ্যে এই বিভেদ নিরসনে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি পদে সাবেক জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান জিএম হীরা বাচ্চুকে দ্বায়িত্ব দেয়া হতে পারে। আর সাধারণ সম্পাদক পদে উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র রবিউল ইসলাম রবি এবং বর্তমান সম্পাদক আব্দুল মালেকের মধ্যে একজন আসবেন। অপরদিকে পৌর কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক পদে শাহরিয়ার রহিম কনক পূণবহাল থাকার সম্ভবনা বেশী থাকলেও পরিবর্তন আসবে সভাপতি পদে।

তবে জেলা আ’লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আহসানুল হক মাসুদ বলেন, উপজেলা সম্মেলনের আগে দলের সদস্য নবায়ন অতিগুরুত্বপূণ। এরপর ওয়ার্ড, ইউনিয়ন ও পৌর শেষে উপজেলা সম্মেলন দেয়ার প্রয়োজন। কেন্দ্রীয় নির্দেশনাও এমনই আছে।

এ ব্যাপারে রাজশাহী জেলা আ’লীগের সাধারন সম্পাদক ও সাবেক সাংসদ আব্দুল ওয়াদুদ দারা বলেন, গত ডিসেম্বরে পুঠিয়া উপজেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। নির্বাচনের কারণে সে সময় সম্মেলন স্থগিত রাখা হয়। চলতি মাসেই উপজেলা ও পৌর সম্মেলন হওয়ার সম্ভবনা রয়েছে। তবে অল্প সময়ের মধ্যে কেন্দ্রীয় হাইকমান্ড থেকে সম্মেলনের অনুমোদন সাপেক্ষে দিনক্ষন নিধারণ করা হবে।

উল্লেখ্য, নানা সমালোচনার মধ্যে দিয়ে সর্বশেষ ২০১৩ সালে ২৭ ফেব্রুয়ারী উপজেলা আ’লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ওই সম্মেলনে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি নির্বাচিত হন সাবেক সাংসদ ও বর্তমান জেলা আ’লীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক আব্দুল ওয়াদুদ দারা। আর সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন পালোপাড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল মালেক। আর পৌর আ’লীগের সভাপতি আবু বক্কর ও সম্পাদক পদে শাহরিয়ার রহিম কনক নির্বাচিত হয়ে ছিলেন।

আপনার মন্তব্য