28.4 C
Rajshahi
সোমবার, আগস্ট 8, 2022

ছাত্রীনিবাসে মিলল ছাত্রীর ‍ঝুলন্ত দেহ

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীতে সুরাইয়া খাতুন (১৮) নামের এক নার্সিং ভর্তিচ্ছু ছাত্রীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শনিবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরের দিকে নগরীর হোসনিগঞ্জ এলাকার একটি ছাত্রীনিবাস থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করেন দমকল কর্মীরা।

নিহত সুরাইয়া খাতুন নওগাঁর নিয়ামতপুর উপজেলা সদরের বালাহৈর এলাকার শহিদুল ইসলামের মেয়ে। গত ৮ এপ্রিল তিনি ওই ছাত্রীনিবাসে ওঠেন। সুরাইরা নগরীর একটি কোচিং সেন্টারে নার্সিং ভর্তির প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন।

পুলিশের ধারণা, প্রেমঘটিত বিষয়ে আত্মহত্যা করেছেন ওই কলেজছাত্রী। এলাকার এক কলেজ ছাত্রের সাথে তার প্রেমের সম্পর্কের তথ্য পেয়েছে পুলিশ।

নিহত সুরাইয়া খাতুনের রুমমেট উম্মে জান্নাত ফেরদৌসি জানান, কয়েকদিন ধরে বিষন্নতায় ভুগছিলেন সুরাইয়া। অধিকাংশ সময় চুপচাপ থাকতেন। কোনো কিছু জিজ্ঞেস করলে রেগেও যেতেন।

উম্মে জান্নাত ফেরদৌসি জানান, দুপুর ১২টার দিকে তিনি পাশের রুমে ঘুমাতে যান। ওই সময় একাই ছিলেন সুরাইয়। কিছুক্ষণ পর তার কথিত প্রেমিক শামিম ফোন দিয়ে জানান-সুরাইয়া আত্মহত্যা করেছেন।

তখনই গিয়ে দরজায় ধাক্কা দিলে দরজা বন্ধ পান। খবর দেয়া হয় ফায়ার সার্ভিস ও থানা পুলিশে। দমকল কর্মীরা এসে দরজা ভেঙে ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেন।

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছিলেন নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার উপপরিদর্শক প্রতাপ কুমার। তিনি বলেন, দমকল কর্মীরা ওই ছাত্রীর মরদেহ উদ্ধার করেন। পরে মরদেহ রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের মর্গে নেয়া হয়। নিহতের পরিবারের সদস্য রাজশাহীতে এসে পৌঁছেছেন। তাদের সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপপরিদর্শক প্রতাপ কুমার আরও বলেন, ওই ছাত্রীর রুমমেটরা তার সর্ম্পেকর কথা জানিয়েছেন। তাছাড়া আত্মহত্যার সময় তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটিতে ইন্টারনেট সচল অবস্থায় পাওয়া গেছে। সেটি পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয়েছে। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

এই রকম আরোও খবর

ফেসবুকে আমাদের ফলো করুন

0Fansমত
3,429অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব
- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ খবর