তাড়াশে গৃহবধূকে শ্বাসরোধে হত্যার অভিযোগ

14
পুঠিয়ায় বালু বোঝাই ট্রাক খাদে, শ্রমিকের মৃত্যু

সিরাজগঞ্জ: সিরাজগঞ্জের তাড়াশে মুর্শিদা খাতুন (২৫) নামে এক গৃহবধূকে বালিশ চাপায় হত্যার অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার রাত ১১টার দিকে উপজেলার মাগুড়া বিনোদ ইউনিয়নের ঘড়গ্রামে স্বামীল বাড়িতে মারা যান ওই গৃহবধূ।

নিহত মুর্শিদা ওই গ্রামের সাইদুর রহমানের স্ত্রী। নেশাগ্রস্ত সাইদুর রহমানের বাবার নাম আবুল কালামের ঘটনার পর থেকে সাইদুর রহমান ও তার পরিবারের সদস্যরা পলাতক।

গৃহবধূর স্বজনদের অভিযোগ, পরিকল্পিত হত্যা করা হয়েছে তাকে। এ নিয়ে থানায় হত্যা মামলা করতে চাইলে মামলা নেয়নি পুলিশ।

তাড়াশ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোস্তাফিজুর রহমান জানান, হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যায়নি। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে বিষয়টি পরিস্কার হবে।

ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়েছে। এনিয়ে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

মুর্শিদার বাবা আব্দুর রশিদ জানান, ৭ বছর আগে পরিবারের সম্মতিতে সাইদুর রহমানের সঙ্গে মেয়ের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই তার সাইদুর মাদকাসক্ত বলে জানিয়েছিলো মুর্শিদা। এনিয়ে কয়েকবার বাবার বাড়ি চলেও আসে সে।

শুক্রবার রাত ১১টার দিকে ঢাকায় শ্রমিকের কাজ করে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় স্বামী সাইদুর বাড়ি ফেরেন। এরপরই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বাগ-বিতণ্ডা শুরু হয়।

মুর্শিদার স্বজনেরা জানান, হঠাৎ করে গভীর রাতে মুর্শিদার মৃত্যুর খবর একই গ্রামের তার বাবার বাড়িতে খবর পাঠানো হয়। পরে আত্মীয় স্বজনরা ঘটনাস্থলে পৌঁছে দেখে খাটের যে দিকে মুর্শিদা শুয়ে আছে সেইদিকে খাটটির পা ভাঙা।

তাদের ধারণা বালিশ চাপা দিয়ে শ্বাসরোধ করে মুর্শিদাকে হত্যার সময় ধস্তাধস্তিতে ওই খাটের পা ভেঙে গেছে।

খবর পেয়ে পরে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

আপনার মন্তব্য