প্রথম শ্রেণির পৌরসভার এ হাল কেনো? মেয়র রাজিনকে প্রশ্ন

8

চাঁপাইনবাবগঞ্জ: প্রথম শ্রেণির পৌরসভার এ হাল কেনো? চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ পৌরসভার জনদুর্ভোগের প্রেক্ষিতে পৌর মেয়র কারিবুল হক রাজিনকে এমন প্রশ্ন করেছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা সৈয়দ মনিরুল ইসলাম।

শনিবার বিকেলে জিকে ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে তারুণ্য সংগঠনের আয়োজনে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ মডেল হাইস্কুলের মাঠে কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এই প্রশ্ন তোলেন 

রাজিনকে মনিরুলের প্রশ্ন সৈয়দ মনিরুল ইসলাম। আসন্ন পৌর নির্বাচনে মেয়র পদপ্রার্থী হচ্ছেন সাবেক সৈয়দ মনিরুল। 

জনগণের কাতারে দাঁড়িয়ে পৌরসভার উন্নয়ন কর্মকাণ্ডে সরকারের বরাদ্দ শতকোটি টাকা কোন খাতে ব্যয় হয়েছে সেটিও  মেয়রের কাছে জানতে চান  সৈয়দ মনিরুল। 

তিনি বলেন, শিবগঞ্জের রাস্তায় মনে হয় সমুদ্রের পানি জমে আছে, কিন্তু কেন? আমার পৌরসভা প্রথম শ্রেনীর পৌরসভা কিন্তু আমার পৌরসভায় রাস্তা কেন ভাঙ্গাচোরা?

তিনি যোগ করেন, আমি প্রার্থী হচ্ছি বলে নয়, ভোটার হিসেবে আপনার কাছে আমার প্রশ্ন, জনগণের কাছে আমার প্রশ্নের জবাব আপনাকে দিতেই হবে। তা না হলে আপনার বিচার করবে শিবগঞ্জ পৌরবাসী।

তিনি আরো বলেন, আপনার লুটপাটের ঘৃণ্য শিকার হচ্ছে আমার প্রাণপ্রীয় শিবগঞ্জবাসী।

বক্তব্যের এক পর্যায়ে মেয়র রাজিনকে ঐক্যের ডাক দিয়ে বলেন, আপনি আপনার ভুল জনতার সামনে স্বীকার করে আসুন একসাথে কাজ করি।

মেয়র পদপ্রার্থী মনিরুল আরও বলেন, আমি কিছু নিতে আসিনি বরং শিবগঞ্জের মানুষকে দিতে এসেছি। করোনাকালে আমার ব্যবসায়ীক কাজ ফেলে এসে জিকে ফাউন্ডেশনের ব্যানারে আপনাদের পাশে দাঁড়িয়েছি।

উল্লেখ্য, করোনাকালে প্রায় ২০ হাজার মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছিলো জিকে ফাউন্ডেশন নামে শিবগঞ্জের একটি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান।

উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপকমিটির সাবেক সহ-সম্পাদক মেহেদী জামিল।

অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সাবেক সাধারণ সম্পাদক নূর হোসেন সৈকত, শিবগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আতিকুল ইসলাম টুটুল খাঁন, পৌর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি প্রশান্ত কুমার সাহা, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আরিফুর রেজা ইমন, সাধারণ সম্পাদক ডা. সাইফ জামান আনন্দ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রিজভী আলম রানা, সাধারণ সম্পাদক আসিফ আহসান, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান হিমেলসহ অন্যরা।

পরে এসএসসি-২০২০ জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ১৩৬ জন কৃতি শিক্ষার্থীর মাঝে সম্মাননার ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।

এর আগে বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন অতিথিরা।

আপনার মন্তব্য