28.4 C
Rajshahi
সোমবার, আগস্ট 8, 2022

বিয়ের জন্য চাপ দেয়ায় হোটেলে নিয়ে হত্যা

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহী নগরীর আবাসিক হোটেল থেকে মরদেহ উদ্ধারের ঘটনাায় গ্রেফতার হয়েছেন মিঠুন আলী (২৮) নামের মূল অভিযুক্ত। নাটোর সদর উপজেলার আগদিঘা এলাকা থেকে সোমবার (১৮ এপ্রিল) দিবাগত রাতে তাকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতার মিঠুন আলী ওই এলাকার মকবুল হোসেনের ছেলে। মঙ্গলবার (১৯ এপ্রিল) দুপুরের পর তাকে আদালতে নেয়া হয়।

তার আগে এই গ্রেফতার অভিযান নিয়ে রাজশাহী মহানগর পুলিশ সদর দপ্তরে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন কমিশনার আবু কালাম সিদ্দিক।

তিনি বলেন, ভুক্তভোগী জয়নব বেগম ও অভিযুক্ত মিঠুন নাটোরের একটি ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন। সেখানেই তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ত গড়ে ওঠে। তিন মাস ধরে তাদের এই সম্পর্ক চলে। কয়েক দপ্তা ধরে বিয়ের জন্য মিঠুনকে হুমকি ও চাপ দিচ্ছিলেন জয়নব।

পরিকল্পনা মাফিক গত ১৭ এপ্রিল সকাল ১০টার দিকে স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে জয়নব বেগমকে নিয়ে নগরীর লক্ষ্মীপুর এলাকার হোটেল ড্রিম হ্যাভেনের ৪০৩ নম্বর কক্ষে ওঠেন মিঠুন। হোটেলে তারা নিজেদের ভুয়া নাম- ঠিকানা দেন। সেখানে ওই নারীকে ধর্ষণের পর বালিশ চাপা দিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যান মিঠুন।

এ ঘটনায় নিহতের বড়ভাই তছলেম প্রামাণিক বাদি হয়ে নগরীর রাজপাড়া থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপরই অভিযুক্তকে গ্রেফতারে অভিযান শুরু করে পুলিশ। ১৮ এপ্রিল দিবাগত রাতে নাটোর সদর উপজেলার আগদিঘা এলাকার নিজ বাড়ি থেকে অভিযুক্ত মিঠুনকে গ্রেফতার করা হয়।
তার বাড়ি থেকে মোবাইল ফোন ও অপরাধের সময় পরিহিত পোষাক-সহ অন্যান্য আলামত জব্দ করে পুলিশ।

জিজ্ঞাসাবাদে মিঠুন জয়নব বেগমকে হত্যার দায় স্বীকার করেছেন। আইনী প্রক্রিয়া শেষে মঙ্গলবার দুপুরের দিকে আদালতে নেয়া হয়েছে।

এই রকম আরোও খবর

ফেসবুকে আমাদের ফলো করুন

0Fansমত
3,429অনুগামিবৃন্দঅনুসরণ করা
0গ্রাহকদেরসাবস্ক্রাইব
- Advertisement -spot_img

সর্বশেষ খবর