মিন্নির আপিল গ্রহণ, জরিমানা স্থগিত

7
যে ২১ যুক্তিতে খালাস পেতে পারেন মিন্নি

দেশজুড়ে ডেস্ক: বরগুনার রিফাত শরীফ হত্যা মামলায় মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত আসামি তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নি ও মোহাইমিনুল ইসলাম ওরফে সিফাতের খালাস চেয়ে করা আপিল গ্রহণ করেছেন হাইকোর্ট।

বিচারপতি এম. ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমান সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট (ভার্চুয়াল) বেঞ্চ বুধবার আপিল গ্রহণ করেন। পাশাপাশি বিচারিক আদালতের দেওয়া ৫০ হাজার টাকার অর্থদণ্ড স্থগিত করেন।

আদালতে মিন্নির পক্ষে আইনজীবী জেড আই খান পান্না ও মাক্কিয়া ফাতেমা ইসলাম এবং সিফাতের পক্ষে আইনজীবী বদিউজ্জামান তরফদার ভার্চুয়ালি আদালতে সংযুক্ত ছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার সারোয়ার হোসেন বাপ্পী।

নিয়ম অনুযায়ী, এ মামলার পেপারবুক তৈরি হবে। পেপারবুক প্রস্তুত করা হলে প্রধান বিচারপতি মামলার শুনানির জন্য বেঞ্চ নির্ধারণ করেন। তখন এ মামলার আপিল শুনানি শুরু হবে।

এর আগে গত ১৩ অক্টোবর মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত অপর আসামি আল কাইয়ুম ওরফে রাব্বী আকন, মো. হাসান ও রেজওয়ান আলী খান হ্নদয়ের আপিলও গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। ৪ অক্টোবর মিন্নিসহ মৃত্যুদণ্ডাদেশপ্রাপ্ত ছয় আসামির ডেথ রেফারেন্সসহ (মৃত্যুদণ্ড অনুমোদেনের আবেদন) মামলার নথি হাইকোর্টে আসে।

গত বছরের ২৬ জুন বরগুনা জেলা শহরের কলেজ রোডে প্রকাশ্যে কুপিয়ে হত্যা করা হয় রিফাতকে। ওই ঘটনার একটি রোমহর্ষক ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়লে দেশজুড়ে শুরু হয় আলোচনা।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ মো. আছাদুজ্জামান চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলার রায় ঘোষণা করেন। রায়ে রিফাত শরীফের স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিসহ ছয় আসামির মৃত্যুদণ্ড দেন আদালত। পাশাপাশি ছয় আসামির সবাইকে ৫০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়। বাকি চার আসামিকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়।

আপনার মন্তব্য