সমাজসেবা অফিসে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের তালা

4
বিলে নৌকা ডুবে মা-ছেলের মৃত্যু

বগুড়া: বগুড়ার সোনাতলা উপজেলায় মাসিক সম্মানিভাতা না পেয়ে উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা। মঙ্গলবার এ ঘটনা ঘটে। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) হস্তক্ষেপে তালা খুলে দেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা।

জানা গেছে, গত ডিসেম্বর মাসের সম্মানিভাতার চেক সোনাতলা উপজেলায় আসে সোমবার (২৫ ডিসেম্বর)। মঙ্গলবার সকাল ১০টার দিকে মুক্তিযোদ্ধারা উপজেলা সমাজসেবা কার্যালয়ে গিয়ে কর্মচারীদের কাছে ভাতার বিষয়টি জানতে চান। সমাজসেবা কর্মকর্তা উপস্থিত না থাকা তারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

পরে ক্ষুব্ধ বীর মুক্তিযোদ্ধারা কার্যালয়ের কর্মচারিদের বের করে দিয়ে সকাল সাড়ে ১০টার দিকে প্রধান ফটকে তালা ঝুলিয়ে দেন। বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাদিয়া আফরিন। বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সঙ্গে কথা বলে ইউএনও বেলা ১১টার দিকে তালা খুলে দেয়ার ব্যবস্থা করেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা মতিয়ার রহমান বলেন, জেলায় ও উপজেলা কার্যালয়ে বারবার বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাজে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা ও কর্মচারিরা অবহেলা করে আসছে। অন্যান্য জায়গায় ডিসেম্বর মাসের ভাতা হলেও আমাদেরটা হয় না। এই আক্ষেপ থেকে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

সোনাতলা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা (অতিরিক্ত দায়িত্বে) আব্দুল হান্নান সরকার বলেন, ‘আমি গাবতলী উপজেলার দায়িত্বে আছি এবং সোনাতলা উপজেলায় অতিরিক্ত দায়িত্ব পালন করছি।’

ফিসে তালা লাগানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কোনো অভিযোগ থাকলে আমাকে ফোনে জানাতে পারতেন। কিন্ত কর্মচারিদের বের করে দিয়ে তালা লাগানোর ঘটনা খুবই দুঃখজনক।’সোনাতলার ইউএনও সাদিয়া আফরিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘বিষয়টি খুবই দুঃখজনক।’

আপনার মন্তব্য