১৫ বছরের আগে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নয়

4

খেলাধুলা ডেস্ক: ক্রিকেটের প্রায় দেড়শ বছরের ইতিহাসে এতদিন বয়সের বিষয়ে কোন ধরাবাঁধা নিয়ম রাখেনি খেলাটির সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি। তবে এখন থেকে এ বিষয়েও নজর দিচ্ছে তারা। আইসিসির সবশেষ সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অভিষেকের ন্যুনতম বয়সের ব্যাপারেও।

শুধু আন্তর্জাতিক ক্রিকেট নয়, আইসিসি স্বীকৃত সবধরনের ক্রিকেটে (নারী, পুরুষ ও অনূর্ধ্ব-১৯) খেলার জন্য সব ক্রিকেটারের বয়স অন্তত ১৫ বছর হতে হবে। অর্থাৎ কোন ক্রিকেটারের বয়স ১৫ হওয়ার আগে তাকে আন্তর্জাতিক মঞ্চে নামার সুযোগ দেয়া হবে না। এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ কথা জানিয়েছে আইসিসি।

বিজ্ঞপ্তিতে তারা লিখেছে, ‘ক্রিকেটারদের সুরক্ষার উন্নতি করতে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের জন্য ন্যূনতম বয়সের বিধিনিষেধের প্রবর্তন নিশ্চিত করেছে আইসিসি। এই বয়সসীমা দ্বিপক্ষীয় ক্রিকেট এবং অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটসহ সবধরনের ক্রিকেটের জন্যই প্রযোজ্য। পুরুষ, নারী এবং অনূর্ধ্ব-১৯ আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলোয়াড়দের খেলতে হলে এখন ন্যুনতম ১৫ বছর বয়স হতে হবে।’

তবে এক্ষেত্রে বিশেষ পরিস্থিতির জন্য ছাড়ের সুযোগও রেখেছে আইসিসি, ‘ব্যতিক্রমী পরিস্থিতিতে যদি কোনও সদস্য দেশের ক্রিকেটে বোর্ড আইসিসির কাছে আবেদন করে, তবে ১৫ বছরের কম বয়সী খেলোয়াড়কে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার অনুমতি দেয়া যেতে পারে। তবে এক্ষেত্রে সেই খেলোয়াড়ের খেলার অভিজ্ঞতা, মানসিক বিকাশ এবং সুস্থতার প্রমাণ দিতে হবে।’

আইসিসির এ সভায় বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ব্যাপারে আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। প্রাথমিকভাবে বলা হয়েছিল, টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে সব দলের ছয় সিরিজ শেষে পয়েন্টের ভিত্তিতে নির্ধারণ করা হবে দুই ফাইনালিস্ট দল।

কিন্তু যেহেতু সব সিরিজ শেষ করা সম্ভব হচ্ছে না। তাই নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে অংশগ্রহণকারী দলগুলো যে কয়টি সিরিজ খেলতে পারবে, সেসব সিরিজে পাওয়া পয়েন্টের শতাংশের হিসেবে ঠিক করা হবে দুই ফাইনালিস্ট।

আপনার মন্তব্য