ধামইরহাটে স্কুলছাত্রী অপহরণের অভিযোগ

বাঘা: রাজশাহীর বাঘায় বিয়ের প্রতিশ্রুতিতে অনৈতিক মেলামেশায় অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন এক গৃহবধূ। এ ঘটনায় গৃহবধূ বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার আসামিকে পুলিশ গ্রেফতার করে জেলহাজতে প্রেরণ করেছে।

কিন্তু গর্ভের সন্তান নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়েন ওই গৃহবধূ। ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়। এ খবর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের দৃষ্টি আকর্ষণ হলে তিনি ওই গৃহবধূর দায়িত্ব নেন।

জানা গেছে, ৬ মাস আগে ওই গৃহবধূর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করে অন্যত্র চলে যান। তারপর প্রতিবেশী মুদি দোকানদার বাদশা আলম নামের এক যুবকের সঙ্গে পরিচয় হয়।

এ পরিচয়ের পরে তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক হয়। একপর্যায়ে তাকে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে অনৈতিক মেলামেশা করে। এতে অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন ওই গৃহবধূ।

অন্তঃসত্ত্বার বিষয়ে তাকে জানানোর পরও সে কোনো কর্ণপাত করেনি। একপর্যায়ে গৃহবধূ নিরুপায় হয়ে ঘটনার পাঁচ মাস পর ২৯ সেপ্টেম্বর বাঘা থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। এ মামলার আসামি বাদশা আলমকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ বিষয়ে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম এমপি শনিবার বলেন, ঘটনাটি আমার দৃষ্টিগোচর হয়েছে। ওই গৃহবধূ ও গর্ভের সন্তানের দায়িত্ব আমার।

বাঘা থানার ওসি নজরুল ইসলাম বলেন, এ মামলার আসামি বর্তমানে কারাগারে রয়েছে। মামলাটি বিচারাধীন।

Leave a Reply