রাজশাহীতে দশ বছর বয়সি শিশুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন শ্রম অধিদফতরের উপ-পরিচালক মনিরুল ইসলাম বারিক (৫৫)।

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী: রাজশাহীতে দশ বছর বয়সি শিশুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগে গ্রেফতার হয়েছেন শ্রম অধিদফতরের উপ-পরিচালক মনিরুল ইসলাম বারিক (৫৫)।

ওই শিশুর মায়ের দায়ের করা মামলায় সোমবার (৯ আগস্ট) বেলা ৩টার দিকে নগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠায়।

অভিুযুক্ত মনিরুল ইসলাম বারিক নগরীর লক্ষ্মীপুর ঝাউতলা এলাকার বাসিন্দা। তিনি শ্রম অধিদফতরের রাজশাহী অফিসে কর্মরত ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে বিবাহীত তিনি।

এর আগে বেলা ১১টার দিকে ঝাউতলা বড় মসজিদ সংলগ্ন পুকুরে সাঁতারে নামা ওই শিশুকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠে মনিরুল ইসলামের বিরুদ্ধে। মনিরুল ইসলাম ওই পুকুরে গোসলে গিয়েছিলেন।

ভক্তভোগী ওই শিশু বাড়ি ফিরে ঘটনা স্বজনদের জানায়। পরে ওই শিশুর পরিবার অভিযোগ নিয়ে মনিরুল ইসলামের বাড়ি যান। এসময় দুপক্ষের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়।

ঘটনা ‍জানাজানি হলে বিক্ষুদ্ধ এলাকাবাসী মনিরুল ইসলামের বাড়ি ঘেরাও করেন। খবর পেয়ে নগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশ গিয়ে তাকে হেফাজতে নেয়।

মামলাটির তদন্তকারী কর্মকর্তা ও নগরীর রাজপাড়া থানার উপপরিদর্শক মকবুল হোসেন মোকবুল হোসেন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, জনরোষ থেকে তাকে উদ্ধার করে থানায় নেয়া হয়। জিজ্ঞাসাবাদ কালে মনিরুল ইসলাম পুলিশকে জানান, সাঁতারে নেমে ওই শিশু ডুবে যাচ্ছিল। তাকে তিনি উদ্ধার করেন। শ্লীলতাহানির অভিযোগি সঠিক নয়।

পরে বিকেলে ওই শিশুর মা থানায় শ্লীলতাহানির অভিযোগ দেন। সেটি মামলা হিসেবে রেকর্ড করা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে মনিরুল ইসলামকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply