মাদক মামলায় জামিন পেলেন পরীমনি

বিনোদন ডেস্ক: মাদক মামলায় ঢালিউডের আলোচিত নায়িকা পরীমনি ও তার সহযোগী আশরাফুল ইসলাম দীপুকে ফের দুদিন করে রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত।

মঙ্গলবার ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট দেবব্রত বিশ্বাসের আদালত রিমান্ডের আদেশ দেন। আদালতের সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন শাখা এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

এদিন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা বনানী থানার মাদকের মামলায় চারদিনের রিমান্ড শেষে তাদের আদালতে হাজির করে একই মামলায় আবারও পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করেন। অন্যদিকে আসামিপক্ষের আইনজীবীরা রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের জন্য আবেদন করেন। 

উভয়পক্ষের শুনানি শেষে আদালত রিমান্ড আদেশ দেন।

শুনানি শেষে গণমাধ্যমকে আইনজীবী মজিবুর রহমান জানান, আসামির বিরুদ্ধে মাদক রাখা ছাড়া আর কোনো অভিযোগ নেই। এই অভিযোগের চার দিনের রিমান্ড শেষে আজ আমার মক্কেলকে রিমান্ড নেওয়ার কোনো যৌক্তিকতা নেই।

তিনি আরও বলেন, পরীমনি এক দিনের চিত্রনায়িকা না। তার দীর্ঘদিনের ক্যারিয়ার নষ্ট করা হচ্ছে। এটা খুবই দুঃখজনক। গ্রেফতারের পর থেকে ১২০ ঘণ্টা তিনি এক কাপড়ে রিমান্ডে রয়েছেন।

এর আগে আদালতের কাঠগড়ায় আনা হলে অঝোরে কাঁদতে দেখা যায় পরীমনিকে। এছাড়াও আদালত থেকে বের হওয়ার সময় তিন বার চিৎকার করেছেন এই চিত্রনায়িকা। চিৎকার করে তিনি বলেন, ‘আমি নির্দোষ, আমাকে ইচ্ছা করে ফাঁসানো হয়েছে। আমাকে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে।’

এছড়াও মঙ্গলবার পরীমনিকে দেখতে আদালতে হাজির হয়েছিলেন নানা শামসুল হক গাজী। এসময় গণমাধ্যমকে তিনি বলেন, নিজের জন্য জীবনে পরীমনি কিছু করেনি। মানুষের জন্য দান করছে। এখন পরিস্থিতির শিকার হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, নিজে একটা ফ্ল্যাট করে নাই। এফডিসিতে প্রতি বছর গরিবদের জন্য কুরবানি দেয়। আল্লাহ পাক যদি তাকে মাফ করে।

পরীমনির বাসা থেকে উদ্ধার হওয়া মদের বোতল প্রসঙ্গে তিনি বলেন, খালি বোতল ছিল। মাদকের বোতল কিনা জানি না। পরীমণির মুক্তি কামনা করে শতবর্ষী শামসুল হক বলেন, আল্লাহ যদি পরীকে মুক্তি দেয়।

বৃহস্পতিবার (৫ আগস্ট) রাজধানীর সিএমএম আদালতের বিচারক হাকিম মামুনুর রশীদ শুনানি শেষে পরীমনির চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছিলেন।

এর আগে বুধবার (৪ আগস্ট) রাতে বনানীর বাসা থেকে পরীমনি ও তার সহযোগীকে আটক করে র‍্যাব।

Leave a Reply