স্টাফ রিপোর্টার: বাঙালির প্রাণের নেতা শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬তম শাহাদতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে নওগাঁয় নানা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এসব কর্মসূচির মধ্য দিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ, শোক র‌্যালী, মানববন্ধন, আলোচনা সভা ও দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরণ।


জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে নওগাঁ শহরের মুক্তির মোড়ে অস্থায়ীভাবে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতি স্থাপন করা হয়। সেখানে সকাল ৯টায় জেলা প্রশাসক হারুন-অর-রশীদের নেতৃত্বে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

পরে একে পুলিশ প্রশাসন, জেলা পরিষদ, নওগাঁ পৌরসভা, সিভিল সার্জন কার্যালয়, নওগাঁ জেলা প্রেস ক্লাবসহ বিভিন্ন সরকারি দপ্তর, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ফুল দিয়ে জাতির পিতাকে শ্রদ্ধা জানান।


সকাল সাড়ে ৯টায় শহরের সরিষাহাটির মোড়ে আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগ।

পরে একে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ, জেলা যুবলীগ, জেলা যুব মহিলা লীগ, জেলা ছাত্রলীগসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ-সংগঠন বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে।

পরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি নির্মল কৃষ্ণ সাহা, জেলা যুবলীগের সভাপতি খোদাদদ খান পিটু, সাধারণ সম্পাদক বিমান কুমার রায়, ছাত্রলীগের সভাপতি সাব্বির রহমান, সাধারণ সম্পাদক আমানুজ্জামান শিউল প্রমুখ।

সভায় বক্তারা বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বাংলাদেশ এক সূত্রে গাঁথা। তিনি ছিলেন বাঙালির প্রাণের নেতা। তিনি নেতৃত্ব দিয়েছেন বলেই বাংলাদেশে এত বড় জনযুদ্ধ সম্ভব হয়েছে। তাঁর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়াই হবে তাঁর ত্যাগের অন্যতম প্রধান মূল্যায়ন।

সকাল সাড়ে ১০টায় বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নওগাঁ জেলা ইউনিট ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তান নওগাঁ জেলা কমিটির উদ্যোগে শোক র‌্যালী বের হয়। শহরের পুরাতন কালেক্টরেট চত্বর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ের সামনে থেকে র‌্যালিটি বের হয়ে শহরের মুক্তির মোড়, বাটার মোড় হয়ে পুনরায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কার্যালয়ে এসে শেষ হয়।

পরে সেখানে বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ হারুন-অল-রশীদের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের উদ্যোগে উপস্থিত মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে খাবার বিতরণ করা হয়।

বেলা ১১ টায় সাবেক ছাত্রলীগ নেতৃব্ন্দৃ ব্যানারে শহরের মুক্তির মোড়ে বিদেশে পালিয়ে থাকা বঙ্গবন্ধুর খুনিদের দেশে ফিরিয়ে এনে ফাঁসি কার্যকরের দাবিতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জাভেদ জাহাঙ্গীর সোহেল ও বিভাস রঞ্জন মজুমদার প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।  

Leave a Reply