আমরুল্লাহ সালেহ

বিদেশ ডেস্ক: রাজধানী কাবুল তালেবানদের নিয়ন্ত্রণে চলে যাওয়ার দুইদিন পর তাদের ঠেকানোর ডাক দিয়েছেন আফগানিস্তানের সদ্য ক্ষমতাচ্যুত সরকারের ভাইস প্রেসিডেন্ট আমরুল্লাহ সালেহ। এক টুইটার বার্তায় এই আহবান জানান তিনি।

দেশবাসীকে ‘প্রতিরোধে যোগ দেওয়ার’ আহ্বান জানিয়ে আমরুল্লাহ সালেহ লিখেন, ‘আফগানদের প্রমাণ করতে হবে যে, আফগানিস্তান ভিয়েতনাম নয় এবং তালেবানরাও ভিয়েতকংয়ের মতো নয়। যুক্তরাষ্ট্র/ন্যাটোর মতো আমরা আত্মা হারাইনি এবং সামনে বিশাল সুযোগ দেখতে পাচ্ছি।’ 
 

টুইটে তিনি আরও লেখেন, ‘প্রতিরোধে যোগ দিন। এখন মার্কিন প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আফগানিস্তান নিয়ে তর্ক করা বৃথা।’
 

ন্যাটোর সৈন্যরা আফগানিস্তান ছাড়ার পর বেশিরভাগ অঞ্চল নিয়ন্ত্রণে নেয় তালেবান। সর্বশেষ রোববার একেবারে প্রতিরোধহীনভাবে দেশটির রাজধানী কাবুল নিয়ন্ত্রণে চলে যায় তাদের। এরপর আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি দেশ ছাড়েন। একে একে দেশটির মন্ত্রী ও সরকারি কর্মকর্তাসহ মার্কিন মিত্ররা যে যেভাবে পেরেছেন দেশ ছেড়েছেন।

তালেবান কাবুলের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার পরদিন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আমরুল্লাহ সালেহর ছবি আসতে থাকে। এসব ছবিতে তাকে তার সাবেক পরামর্শদাতা এবং তালেবানবিরোধী যোদ্ধা আহমদ শাহ মাসুদের ছেলের সঙ্গে হিন্দু কুশের একটি পাহাড়ি এলাকায় দেখা যায়।
 

তবে আন্তর্জাতিক বিভিন্ন গণমাধ্যমে তার দেশ ছেড়ে পালিয়ে যাওয়ার খবর প্রকাশ পায়। ছবি দিয়ে ফরাসী বার্তাসংস্থা এএফপি বলছে, তালেবান মোকাবিলায় সালেহ স্থানীয় একটি মিলিশিয়া বাহিনীর কমান্ডার মাসুদের ছেলেকে নিয়ে পাঞ্জশিরে গেরিলা আন্দোলনের জন্য মিলিশিয়াদের সংগঠিত করছেন।

পাঞ্জশির উপত্যকা প্রাকৃতিক প্রতিরক্ষার দুর্গ হিসেবে পরিচিত। ১৯৯০ এর দশকে গৃহযুদ্ধের সময়ও তালেবানের হাতে ওই এলাকার পতন হয়নি। এমনকি সোভিয়েত আমলেও এই উপত্যকা জয় করতে পারেনি কেউই। 

Leave a Reply