র‌্যাবের অভিযান

স্টাফ রিপোর্টার: সাঁড়াশি অভিযান চালিয়ে নওগাঁ শহরের ছয় ভূয়া ডেন্টাল চিকিৎসককে পাকড়াও করেছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার (১৯ আগষ্ট) দুপুর ২ টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত শহরজুড়ে এ অভিযান চলে।

আটকের পর ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে কথিত এসব চিকিৎসককে জেল-জরিমানা দেয়া হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন- শহরের কালিতলা মহল্লার মৃত তমিজ উদ্দিনের ছেলে তৌফিকুল ইসলাম তুহিন (৪২), কাঁচাবাজার এলাকার মৃত মধুসদন সাহার ছেলে কৃষ্ণ কমল সাহা (৫৮), খাস-নওগাঁ মহল্লার মৃত ছহির উদ্দিনের ছেলে শহীদুল ইসলাস (৬১), মৃত আব্দুল আজিজ খানের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৪৫) এবং লাটাপাড়া মহল্লার আশরাফুল ইসলাম (৪০) ও সাজ্জাদ হোসেন (৪১)।

র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের এই অভিযানে নেতৃত্ব দেন ওগাঁ সদর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাহারুল ইসলাম। অভিযানে র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার লেঃ কমান্ডার তৌকির আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।


ভ্রাম্যমান আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নাহারুল ইসলাম বলেন, বিডিএস ডিগ্রী নেই, এইচএসসি পাস করেই ডাক্তার পদবি ব্যবহার করে দীর্ঘ বছর ধরে তারা দাঁতের চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন। শুধু তাই নয়, অন্য ডেন্টিস্টদের বিডিএস সনদ রেজিস্টেশন চুরি করে তা নিজের বলে চালিয়ে আসছিলেন এতদিন। 

মানুষের কাছে নিজেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক বলে প্রতারণা করে আসছিলেন তারা। এমনই কয়েকজন ব্যক্তিকে ভ্রাম্যমান আদালতে জেল জরিমানা করা হয়েছে।


তিনি আরো বলেন, তৌফিকুল ইসলাম তুহিকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানাসহ দুই মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।

এছাড়া কৃষ্ণ কমল সাহা ও জাহাঙ্গীর আলমের ৩০ হাজার টাকা করে জরিমানা, শহীদুল ইসলামের ৪০ হাজার টাকা জরিমানা এবং আশরাফুল ইসলাম ও সাজ্জাদ হোসেন এর দুই মাস ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে।
 

Leave a Reply