স্ত্রী রান্না করতে দেরি, দলায় দড়ি স্বামীর

স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর ধামইরহাটে গলায় ফাঁস দিয়ে আলম হোসেন (১৭) নামের এক দাখিল পরীক্ষার্থী আত্মহত্যা করেছে। 

বৃহস্পতিবার দিনগত রাত সাড়ে ১২টায় দিকে উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের কোকিল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, ওই গ্রামের ভ্যানচালক আব্দুস সালামের ছেলে আলম হোসেন (১৭) বৃহস্পতিবার রাতে তার ছোট ভাইয়ের সঙ্গে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত সাড়ে ১২টার দিকে সে ঘরের আড়ার সঙ্গে রশি দিয়ে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করে। 

আলম এবার কোকিল ও রুপনারায়ণপুর সম্মিলত আলিম মাদ্রাসা থেকে দাখিল পরীক্ষা দেওয়ার কথা ছিল। 

আত্মহত্যার কারণ জানা যায়নি। তবে গলায় ফাঁস নেওয়ার আগে আলম একটি চিরকুটে লিখে গেছে। সেখানে সে তার মৃত্যুর জন্য কাউকে দায়ী না করে ক্ষমা চেয়ে সবার দোয়া কামনা করেছে। 

তিন ভাইয়ের মধ্যে আলম সবার বড় ছিল। শুক্রবার বিকালে তার লাশ নিজ গ্রামে দাফন করা হয়। 

এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার ওসি মো.আব্দুল মমিন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছি। কোনো অভিযোগ না থাকায় সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি করে দাফনের জন্য লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ব্যাপারে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

Leave a Reply