আসল র‌্যাবের হাতে দুই ভুয়া র‌্যাব ধরা

নাটোর: আসল র‌্যাবের হাতে ধরা পড়েছে দুই ভুয়া র‌্যাব সদস্য। শনিবার (২২ আগস্ট) সন্ধ্যা ৬টার দিকে নাটোরের বড়াইগ্রাম থানার গোপালপুর এলাকা থেকে ওই দুই প্রতারককে গ্রেফতার করে র‌্যাব-৫।

এরা হলেন- পাবনার সাথিয়া উপজেলার হলুদঘর এলাকার সিদ্দিকুর রহমানের ছেলে সেলিম মোর্শেদ (৩৪) ও একই উপজেলার গোপালপুরের সোহরাব আলী মাস্টারের ছেলে এরশাদ আলী (৩৫)।

তাদের কাছে ভুয়া পুলিশ আইডি কার্ড, পুলিশ স্টিকারযুক্ত মোটরসাইকেল, র‌্যাবের ব্যাগ, সুইচ চাকু, ভুয়া জীবনবৃত্তান্ত ফর্ম পাওয়া গেছে। প্রতারণা করে হাতিয়ে নেয়া ১৭ হাজার ৭৪০ টাকাও জব্দ করেছে র‌্যাব।

সোমবার (২৩ আগস্ট) সকালে র‌্যাব-৫ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, রোববার সন্ধ্যায় র‌্যাব-৫ সিপিসি-২ নাটোর ক্যাম্পের একটি দল বড়াইগ্রাম থানাধীন গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদ এলাকায় অভিযান চালায়।

ওই অভিযানে নেতৃত্ব দেন র‌্যাবের কোম্পানী কমান্ডার মেজর সানরিয়া চৌধুরী এবং কোম্পানী উপ-অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফরহাদ হোসেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চালানো ওই অভিযানে ধরা পড়েন ওই দুজন।

ওই দুজন র‌্যাব পরিচয়ে বড়াইগ্রাম উপজেলার জোনাইল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোজাম্মেল হক ও নগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নিলুফার ইয়াসমিন ডালুর চাঁদা আদায় করেন। এছাড়া গোপালপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খানের কাছেও চাঁদা দাবী করেন তারা।

নিজেদের প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের লোক এবং আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সার্বিক অবস্থা তদারকির জন্য দায়িত্বপ্রাপ্ত হয়েছেন বলে পরিচয় দিচ্ছিলেন এই দুই প্রতারক। তাদের দাবিকৃত টাকা প্রদান করলে ইউপি নির্বাচনে জয়ের সম্ভাবনা শতভাগ।

খবর পেয়ে দ্রুত অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে নাটোরের বড়াইগ্রাম থানায় মামলা হয়েছে।

Leave a Reply