কসমেটিকস পছন্দ না হওয়ায় আত্মহত্যা নববধূর 

প্রিয় দেশ ডেস্ক: শোক দিবসের খিঁচুড়ি কম দেয়ায় হত্যা করা হয়েছে আবদুল মান্নান (৩৮) নামের এক আওয়ামী লীগ কর্মীকে। রোববার (২২ আগস্ট দিবাগত গভীর রাতে সাতক্ষীরার কলোরোয়ায় এই ঘটনা ঘটে।

নিহত আবদুল মান্নান উপজেলার দেয়াড়া ইউনিয়নের কাশিয়াডাঙ্গা এলাকার আলী বকসের ছেলে। আবদুল মান্নান আসন্ন ইউপি নির্বাচনে (স্থগিতকৃত) আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের (চশমা প্রতীক) সমর্থক ছিলেন।

এই ঘটনায় দুজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এরা হলেন-একই এলাকার আবু হানিফ (২৩) ও তার বাবা মুজিবুর রহমান (৫০)। এই বাবা ও ছেলে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের প্রার্থী ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মফের সমর্থক বলে জানা গেছে।

স্থানীয়রা জানান, ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা দুই ভাগে বিভক্ত। সেই হিসেবে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক জাতীয় শোক দিবস ও ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলায় নিহতদের স্মরণে পৃথক কর্মসূচি পালন করেন।

এর মধ্যে ২১ আগস্ট রাতে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের আয়োজনে স্থানীয় পেয়ারাতলায় আলোচনা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল শেষে সেখানে খিচুড়ি বিতরণ করা হয়।

খিচুড়ি কম দেওয়াকে কেন্দ্র করে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের সমর্থক আব্দুল মান্নানের (নিহত ব্যক্তি) সঙ্গে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মফের সমর্থক হানিফের কথা কাটাকাটি হয়।

এর জের ধরে রবিবার রাত ৮টার দিকে হানিফ স্থানীয় কাশিয়াডাঙ্গা বাজারে আব্দুল মান্নানকে পেয়ে তার পেটে ক্ষুর মারেন। এ সময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পথে তিনি মারা যান।

কলারোয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জেল্লাল হোসেন জানান, এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সজীব খান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। ইতিমধ্যে এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত হানিফ ও তার বাবা মুজিবুরকে আটক করা হয়েছে।

Leave a Reply