আত্রাইয়ে মোটরসাইকেল আরোহী ২ কিশোরের মৃত্যু

স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁয় আলাদা সড়ক দুঘটনায় দুই মোটরসাইকেল আরোহী মারা গেছেন। রোববার (২৯ আগস্ট) রাতে সাপাহারের তুলশীতলায় মারা যান একজন। অন্যজন সন্ধ্যায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে মারা গেছেন।

মৃত ওই দুই মোটরসাইকেল আরোহী হলেন-উপজেলার কল্যানপুর গ্রামের ইসমাইল হোসনের ছেলে মো. বাবু (২৪) এবং উপজেলার গোয়ালা ইউনিয়নের চহেড়া গ্রামের পশু চিকিৎসক ফারুকের ছেলে সারোয়ার (২৮)।

থানা পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, রোববার রাত সাড়ে ৭টার দিকে বাবু বাড়ি থেকে চাচাতো ভাইকে সঙ্গে নিয়ে মোটরসাইকেল যোগে নিশ্চিন্তপুর বাজারের দিকে যাচ্ছিলেন।

পথে তুলশীপাড়া এলাকায় কার্গো ভ্যানের সাথে সজোরে ধাক্কা লাগলে মোটরসাইকেলের নিয়ন্ত্রণ হারান। এসময় চাচাতো ভাই পিছন থেকে লাফ দিয়ে সরে যেতে পারলেও বাবু চলে যান কার্গো ভ্যানের চাকার নিচে।

পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। দুর্ঘটনার পরপরই কার্গো ভ্যানটি পালিয়ে যায়।

অন্যদিকে, বৃহস্পতিবার দুপুরে নওগাঁ থেকে মোটরসাইকেল যোগে নওগাঁ থেকে ফিরছিলেন সারোয়ার। মহাদেবপুরে দ্রুতগামী একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে পেছন থেকে ধাক্কা দেয়।

এতে মারাত্মকভাবে আহত হন সারোয়ার। ওই দিনই তাকে উদ্ধার করে রামেক হাসপাতালে নেয়া হয়। চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার সন্ধ্যার দিকে তিনি মারা যান।

সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তারেকুর রহমান তুলশীতলায় দূর্ঘটনার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।  তিনি বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

ততক্ষণে চাপা দেয়া কার্গোটি পালিয়ে গেছে। ফলে এর চালক ও তার সহকারীকে আটক করা সম্ভব হয়নি। পরে মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নেয়া।

রামেকে আরেক মোটরসাইকেল আরোহীর মৃত্যুর বিষয়টি জানতে চাইলে সংশ্লিষ্ট থানা পুলিশে ওই বিষয়ে আইনত ব্যবস্থা নেবে বলে জানান ওসি।

Leave a Reply