স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর রাণীনগরের স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ময়নুল ইসলামের (৩৫) আপত্তিকর ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। উপজেলার একডালা ইউনিয়ন পরিষদের সম্ভাব্য এক নারী সদস্য প্রার্থীর সাথে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ার পরে এই ভিডিও ধারণ করেন এলাকাবাসী। ওই ভিডিওতে দুজনেই তাদের অনৈতিক সম্পর্কের কথা স্বীকার করেন।

জানা গেছে, নওগাঁর রাণীনগর উপজেলা একডালা ইউনিয়ন স্বেচ্ছা সেবকলীগের সহ-সভাপতি নারায়ন পাড়া গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে ময়নুল ইসলাম আগামী ইউপি নির্বাচনে সংরক্ষিত (মহিলা) আসনে সম্ভাব্য মেম্বার প্রার্থীর ঘরে গত সোমবার গভীর রাতে প্রবেশ করে অনৈতিক কাজে লিপ্ত হয়। এ সময় স্থানীয় লোকজন টের পেয়ে তাদেরকে হাতে নাতে আটক করে।

ঘটনাটি জানতে পেয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও ময়নুল এর চাচাতো ভাই রেজাউল ইসলাম ওই রাতেই স্থানীয়দের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করে ঘটনাস্থল থেকে ময়নুলকে ছাড়িয়ে নেয়।

উক্ত ঘটনা ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করলে অভিযুক্ত ময়নুলের ¯ী^কারোক্তিমূলক বক্তব্যের ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ( ফেসবুকে) ভাইরাল করে দেয় স্থানীয়রা। ভিডিওটিতে অভিযুক্ত ময়নুল ইসলাম ওই মহিলার সাথে তার দীর্ঘদিনের অনৈতিক সম্পর্ক ও আপত্তিকর অবস্থায় হাতে নাতে আটকের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত ময়নুল ইসলাম জানান, আমাকে তারা আটক করে পাশে থেকে যা বলতে বলেছে তাই বলেছি। সেই ভিডিও তারা ভাইরাল করেছে।

একডালা ইউপি চেয়ারম্যান রেজাউল ইসলামের কাছে বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি বলেন, ওইদিন আমি বাড়িতে ছিলাম না। বিষয়টি আমার জানা নেই।

রাণীনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. শাহিন আকন্দ জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। তবে আমার কাছে এখনো কেউ অভিযোগ করেনি।

Leave a Reply