আত্রাই নিখোঁজ স্বামী-স্ত্রীর মরদেহ মিলল ১৮ ঘণ্টা পর

স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর মহাদেবপুরে আত্রাই নদীতে গোসলে নেমে নিখোঁজ পারভেজ হোসেন (২২) এবং তার স্ত্রী মিনি আক্তার সোমার (১৮) মরদেহ পাওয়া গেছে।

তলিয়ে যাবার প্রায় ১৮ঘন্টা পর  সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) সকাল ৯টার দিকে প্রায় এক কিলোমিটার ভাটিতে তাদের মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। 


এর আগে রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার খাজুর ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর এলাকায় আত্রাই নদীতে গোসল করতে নেমে নিখোঁজ তারা।


স্থানীয় সূত্র জানা যায়, গত কয়েকদিন আগে উপজেলার খাজুর ইউনিয়নের রামচদ্রপুর গ্রামের রেজাউল ইসলামের ছেলে জুয়েল এর বাড়ি বেড়াতে আসেন পারভেজ হোসেন ও মিনি আকতার সোমা। 

নিহত মিনি আকতার সোমার মামাতো বোন মুনিয়া আকতার (রেজাউল ইসলামর স্ত্রী)। রোববার দুপুরে বাড়ির পাশে আত্রাই নদীতে খেয়াঘাটে তারা গোসলে নামে। 

আরও পড়ুন: আত্রাই নদীতে গোসলে নেমে স্বামী-স্ত্রী নিখোঁজ


আত্রাই নদীত স্রোত থাকায় পানিতে নামার পর তারা নিখোঁজ হয়। খবর পেয়ে স্থানীয়রা বিভিন্ন ভাবে খোঁজ করে পায়নি। পরে মহাদেবপুর ফায়ার সার্ভিসকে সংবাদ দেয়। 

বিকেল ৫ টার দিকে ডুবুরিরা ঘটনাস্থল পৌঁছে উদ্ধার কাজ শুরু করে। রাত ৮ টা পর্যন্ত খোঁজ না পেয়ে প্রথমদিনের উদ্ধার কাজ বন্ধ ঘোষণা করে। সোমবার সকাল সাড় ৮টা থেকে আবারও উদ্ধার কাজ শুরু হয়। 

সকাল সাড়ে ৯টার দিকে নিখোঁজ ঘটনাস্থলের প্রায় এক কিলোমিটার দুরে রামচদ্রপুর নামক স্থান পাশাপাশি দম্পত্তির মরদহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল। নিখোঁজ গৃহবধূ মিনি অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন বলে নিহতের পরিবার জানিয়েছে।

মহাদেবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আজম উদ্দিন মাহমুদ উদ্ধারের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, উপজেলার রামচন্দ্রপুর নামক ওই স্থান থেকে এক কিলোমিটার দূরে থেকে তাদের দুজনেরই মরদেহ উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।

আইনানুগ পক্রিয়া শেষে পরিবারের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান তিনি।

Leave a Reply