ধামইরহাটে স্কুলছাত্রী অপহরণের অভিযোগ

স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর ধামইরহাটে সংখ্যালঘু এক স্কুলছাত্রী (১৪) অপহরণের অভিযোগ উঠেছে। গত ১১ সেপ্টেম্বর উপজেলার ধামইরহাট ইউনিয়নের কালুপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। 

ওই কিশোরী স্থানীয় জগদল আদিবাসী স্কুল ও কলেজের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। সে ওই গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, কালুপাড়া গ্রামের ওই ছাত্রী গত ১১ সেপ্টেম্বর,শুক্রবার রাত ৮টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে বাড়ী থেকে বের হয়। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হওয়ার পর মেয়ে বাড়ীতে ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন তাকে খুঁজতে থাকে।


এক পর্যায়ে প্রতিবেশীর মাধমে জানতে পারে তার মেয়েকে একই এলাকার ছোট শিবপুর গ্রামের আবু বক্করের ছেলে মেহেদী হাসানসহ ৩/৪ জন জোরপূর্বক সিএনজিতে উঠিয়ে নিয়ে যায়। 

বিষয়টি স্থানীয় ইউপি সদস্য গোলাম মোস্তফা ও সাবেক ইউপি সদস্য হায়দার আলীসহ অন্যান্য ব্যক্তিদের নিয়ে মেহেদী হাসানের বাবা আবু বক্করের নিকট গেলে ওই কিশোরীকে তাদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করবে মর্মে আশ্বস্ত করে। কিন্তু বারবার আশ্বস্ত করার পরও কিশোরীকে ফেরত দেয়নি।


মেয়েটির মা অভিযোগ করে বলেন, লম্পট ও নারী লোভী মেহেদী হাসানের বাড়ীতে দুই স্ত্রী রয়েছে। তার মেয়েকে মেহেদি বিভিন্নভাবে উত্যক্ত করতো। 

এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি)মো.আব্দুল মমিন বলেন,এ বিষয়ে এখনও কেউ অভিযোগ দায়ের করেননি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত করে প্রয়োজনীয় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a Reply