নওগাঁর মান্দা উপজেলায় ইফতার মাহফিলে গিয়ে ধর্ষণের পর হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়েছে সাদিয়া আক্তার (৭) বছরের এক শিশু।

স্টাফ রিপোর্টার: ৩৫ বছর ধরে তিল তিল করে নগদ টাকা জমিয়েছিলেন নওগাঁর মান্দা উপজেলার গ্রাম্য কবিরাজ আব্দুল মাজেদ। এক রাতেই তা নিয়ে গেছে ডাকাত দল। সোমবার (১৪ সেপ্টেম্বর) এই ঘটনা ঘটে। 

কবিরাজ আব্দুল মাজেদ উপজেলার সদর ইউনিয়নের সাহাপুর জংলিপাড়া গ্রামের মৃত ওসমান আলীর ছেলে। দীর্ঘদিন ধরেই কবিরাজির সাথে সম্পৃক্ত তিনি।

তবে কি পরিমাণ টাকা ডাকাতরা নিয়ে গেছে এনিয়ে ধোয়াশা তৈরী হয়েছে। এলাকায় চাউর হয়েছে, ডাকাত দল নিয়ে গেছে প্রায় কোটি টাকা। সারা জীবনের জমানো টাকা হারিয়ে পাগলপ্রায় কবিরাজ।

একই রাতে মান্দা উপজেলার সদর ইনডেক্স টেকনিক্যাল বিএম এন্ড জেনারেল কলেজের মালামাল চুুরির ঘটনা ঘটেছে।


জানাগেছে, সোমবার দিবাগত রাতের কোন এক সময় আব্দুল মাজেদ কবিরাজের বাড়ীতে ডাকাত দল প্রবেশ করে। তারা কবিরাজের বাক্স ভেঙে সেখানে জমানো প্রায় ১ কোটি টাকা নিয়ে যান।


কবিরাজ আব্দুল মাজেদ জানান, তিনি প্রায় ৩৫ বছরের কবিরাজি করেন। লেখাপড়া না জানায় ব্যাংকে যাননি। কবিরাজি করে পাওয়া টাকার পুরোটাই জমিয়েছিলেন বাড়িতে। তার বাক্সে নগদ প্রায় এক কোটি টাকা ছিল। ফাঁকা বাড়ি পেয়ে ডাকাতরা পুরো টাকা নিয়ে গেছে।

মান্দা থানার ওসি (তদন্ত) মেহেদি মাসুম বলেন, চুরি কিংবা ডাকাতির ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে খতিয়ে দেখা হবে।

Leave a Reply