মেধাবি রাজন-সাজনের পাশে পুনাক

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী: রাজশাহীর অসচ্ছল ও মেধাবি যমজ গোলাম সাকলাইন সাজন ও গোলাম রাব্বানী রাজনের পাশে পুলিশ নারী কল্যাণ সমিতি (পুনাক)।

বৃহস্পতিবার (৩ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে নিজ কার্যালয়ে ডেকে তাদের হাতে সহায়তার ৬০ হাজার টাকা তুলে দিয়েছেন জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসান। এসময় রাজন-সাজনের মা রুনা লায়লাসহ জেলা পুলিশের শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

রাজন ও সাজন জেলার বাঘা উপজেলার মনিগ্রাম এলাকার আব্দুস সামাদের ছেলে। ২০২১ সালে বাঘার মনিগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয় থেকে বিজ্ঞান বিভাগে এ-প্লাস পেয়ে এসএসসি উত্তীর্ণ হয়েছে তারা। রাজশাহী ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড স্কুল এন্ড কলেজে একাদশ শ্রেণিতে ভর্তির সুযোগ পেয়ে অর্থাভাবে তাদের ভর্তি এবং পড়ালেখা অনিশ্চিত হয়ে পড়ে।

জানা গেছে, পেশায় কাঠমিস্ত্রি ছিলেন রাজন-সাজনের বাবা আব্দুস সামাদ। গত পাঁচ বছর ধরে তিনি পক্ষাঘাতগ্রস্থ হয়ে শয্যাশয়ী। স্বামীর অসুস্থতায় যমজ দুই ছেলে এবং একমাত্র মেয়েকে নিয়ে অকূল পাথারে পড়েন রুনা লায়লা। তাদের দুর্ভোগের খবর পেয়ে তাদের পাশে দাঁড়াল পুনাক।

জেলা পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন জানিয়েছেন, তারা নির্বিঘ্নে পড়াশুনা চালিয়ে যেতে পারে সেই মানবিক দৃষ্টিকোণ হতে তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে পুনাক। ভবিষ্যতেও তাদের পড়াশুনার বিষয়ে পুনাক, রাজশাহী জেলা শাখার সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে।

Leave a Reply