প্রিয় দেশ ডেস্ক: অনুমতি ছাড়া বাগান বা গাছ কাটা যাবে না। এমটিই থাতছে ‘বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশন আইন, ২০২১’ এ। আইনের খসড়ার অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে ভার্চ্যুয়ালি মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান। গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী এবং সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রীরা ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে যোগ দেন।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘যারা সাধারণ বাগান করবেন বা স্থায়ী যে গাছ লাগাবেন, সেগুলোও তারা তাদের ইচ্ছেমতো কাটতে পারবেন না। পৃথিবীর প্রায় সব দেশেই এরকম নিয়ম আছে। সৌদি আরবে ইউ ক্যান নট ইমাজিন। আমার বাড়িতে একটি গাছ পড়ে গেছে, এটা আমি সিটি করপোরেশন বা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া কাটতে পারব না। এটা ভারতেও আছে। এটাকে ভালোভাবে ইমপ্লিমেন্ট করতে বলা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘এ আইনের মাধ্যমে সব বনাঞ্চলকে প্রটেকশন (সুরক্ষা) দেওয়া হয়েছে। সামাজিক বনায়নে থাকা গাছও এর আওতায় আসবে। এখানে বুঝতে হবে স্থায়ী গাছের কথা বলা হয়েছে। লাউ গাছ কাটতে কোনো সমস্যা নাই।’

‘আমি যতটুকু জানি, আগেও এরকম একটি প্রবিশন ছিল। এটিকে একটু সহজ করে কর্তৃপক্ষকে অনুমতি দিতে বলা হয়েছে। কারণ গাছ ভেঙে যদি সাত দিন পরে থাকে, সময় লাগে অনুমতি নিতে, সেটা হলে তো মুশকিল। তাই এটিকে একটু সহজ করতে বলা হয়েছে, এটি অনলাইনে করা যায় কি না।’

‘বাংলাদেশ বনশিল্প উন্নয়ন করপোরেশন আইন, ২০২১’— এর খসড়া প্রসঙ্গে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘এখানে অনেকগুলো বিষয় আছে। যেমন এটি একটি করপোরেশন হবে। করপোরেশনের একজন চেয়ারম্যান ও পরিচালক থাকবেন। তারা এটাকে প্রশাসনিকভাবে দেখবেন, বোর্ড থাকবে। সেই বোর্ড নীতিগত বিষয়গুলো তদারকি করবে।’

Leave a Reply