স্টাফ রিপার্টার: নওগাঁর মহাদেবপুরে অফিস সহকারীর বিরুদ্ধে পঞ্চম শ্রেণি পড়ুয়া এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। 

প্রিয় দেশ ডেস্ক: ঠাকুরগাঁওয়ে ওড়না দিয়ে মুখ বেঁধে ১৩ বছর বয়সী শালীকে ধর্ষণের অভিযোগে দুলাভাইকে গ্রেপ্তার করেছে সদর থানা পুলিশ।

সুমন (২৭) নামের ওই যুবককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃত সুমন সদর উপজেলার সালন্দর সিংপাড়া গ্রামের আব্দুর সবুরের ছেলে।

রোববার (২০ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় বিয়ষটি নিশ্চিত করেন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) তানভিরুল ইসলাম।ওসি বলেন, ভুক্তভোগীর বাবা জামাইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা করলে রবিবার দিবাগত রাতে সুমনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, গত ১০ ফেব্রুয়ারি সকালে দুলাভাই বাসায় দাওয়াত খেতে যায় ১৩ বছরের ওই কিশোরী।

ওই রাতে ভুক্তভোগীর বোন ঘুমিয়ে পড়লে সুমন তার শালীকে ওড়না দিয়ে মুখ বেঁধে ধর্ষণ করেন।

বিষয়টি তার পরিবারকে জানালে ১২ ফেব্রুয়ারি কিশোরীকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করান তার বাবা। পরে ১৬ ফেব্রুয়ারি মেয়েটির চিকিৎসা শেষে ছাড়পত্র নিয়ে ১৯ ফেব্রুয়ারি জামাইয়ের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করেন শ্বশুর।

এ বিষয়ে ভক্তভোগীর বাবা বলেন, সুমন আমার জামাই হলেও সে জঘন্য অপরাধ করেছে। তার আমি তার সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করছি। যাতে ভবিষতে কেউ আর এমন কোনো কিছু করার সাহস না পায়। অন্য কোনো বাবার যেন এমন পরিস্থিতির মুখোমুখি না হতে হয়।

Leave a Reply