দোকান খালি, গুদামে মিলল ৮০০ লিটার সায়াবিন

স্টাফ রিপোর্টার, রাজশাহী: দুই লিটার বোতলজাত সয়াবিনের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য (এমআরপি) ৩১৮টাকা। বোতলের গায়েও সেটি স্পষ্ট হরফে লিখা। কিন্তু বাড়তি দাম নিতে মাঝের ‘১’ সংখ্যাটি মুছে তেল বিক্রি করছিলেন রাজশাহীর উপশহর নিউ মার্কেট এলাকার এক দোকানী।

এই ঘটনায় আব্দুর রশিদ নামের ওই দোকানীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের রাজশাহী বিভাগীয় কার্যালয়।

 এর আগে বৃহস্পতিবার (৩ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপশহর নিউ মার্কেটে আব্দুর রশিদের মালিকানাধীন রইস উদ্দিন স্টোরে অভিযান চালায় ভ্রাম্যমান আদালত। সেখানে থেকে এমআরপি মুখে ফেলা ৫টি তেলের বোতল জব্দ করা হয়।

 অভিযানে নেতৃত্ব দেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক হাসান-আল-মারুফ। তিনি বলেন, তেলের মোড়কে এমআরপি লেখা ছিল ৩১৮ টাকা। 

কিন্তু দোকানী মাঝের ‘১’ লেখা মুছে ফেলেছেন। বাড়তি মূল্যে তেল বিক্রির উদ্দেশ্যে তিনি এই কাণ্ড করেন। অভিযানে ওই দোকানীকে ৩০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

 এর আগে বুধবার (২ মার্চ) সর্বোচ্চ খুচরা বিক্রয় মূল্যের চেয়ে বেশি মূল্যে সয়াবিন তেল বিক্রির দায়ে নগরীর উপশহর নিউমার্কেট এলাকার মেসার্স এস আলম ট্রেডার্স সিলগালা করে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর।

বৃহস্পতিবার দুপুরে এনিয়ে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বিভাগীয় কার্যালয়ে শুনানী হয়। প্রতিষ্ঠানটিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করে বিষয়টি নিস্পত্তি করা হয়েছে।

 আগামীতে এমন কাণ্ড ঘটাবেননা এমন মুচলেকা নিয়ে দোকানটি খোলার অনুমতি দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সহকারী পরিচালক হাসান-আল-মারুফ।

 তিনি বলেন, রাজশাহী নগরীতে ভোজ্য তেলের ঘাটতি নেই। সরবরাহ পর্যাপ্ত। কিন্তু অসাধু ব্যবসায়ীরা অবৈধ মজুদ গড়ে কৃত্রিম সংকট তৈরীর চেষ্টা করছেন। 

তথ্য পেলেই দ্রুত অভিযান চালিয়ে আইনত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এসময় তথ্য দিয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরকে সহায়তার আহবান জানান তিনি। 

Leave a Reply