স্ত্রী রান্না করতে দেরি, দলায় দড়ি স্বামীর

স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর মহাদেবপুরে নিজ শোবার ঘর থেকে বিদ্যুৎ আলী (৪৫) নামের এক চা-দোকানির মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২২ মার্চ) সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের ফাজিলপুর সানাপাড়া এলাকার নিজ বাড়ি থেকে তার মরদেহ উদ্ধার হয়।

নিহত বিদ্যুৎ আলী ওই  গ্রামের জসীম উদ্দিনের ছেলে। উপজেলা সদরের বাসস্ট্যান্ডে চায়ের দোকান দিয়ে সংসার চালাতেন তিনি।

নিহত বিদ্যুত আলীর ভাই রমজান আলী জানান, বেশ কিছু দিন ধরেই স্ত্রীর সঙ্গে পারিবারিক কলহ চলছিল তার। এরই জেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন। 

থানা-পুলিশ ও স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানা গেছে, রাতে ওই চা-দোকানি ও তার স্ত্রী একই ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। রাতের কোনো একসময়ে স্ত্রীর অজান্তে তিনি ওড়না পেঁচিয়ে গলায় ফাঁস দেন। সকালে স্বামীর ঝুলন্ত মরদেহ দেখতে পান স্ত্রী। 

এরপর স্থানীয়দের সহযোগিতায় মরদেহ নিচে নামানো হয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। 

মহাদেবপুর থানার ওসি আজম উদ্দিন মাহমুদ বলেন, ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়েছে। মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা, সেটি ময়নাতদন্তের প্রতিবেদনের পরই নিশ্চিত হওয়া যাবে। এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যুর মামলা হয়েছে। 

Leave a Reply