সাপাহার: নওগাঁর সাপাহার উপজেলা থেকে ১০ পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারীকে আটক করেছেন র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের সদস্যরা। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার বাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

সাপাহার: নওগাঁর সাপাহার উপজেলা থেকে ১০ পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারীকে আটক করেছেন র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্পের সদস্যরা। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) রাত সাড়ে ১০টায় উপজেলার বাজার এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

বুধবার (২৩ মার্চ) সকালে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এসব তথ্য জানায় র‌্যাব-৫।

আরও পড়ুন: ৮ বছর পর একসঙ্গে চার সন্তান জন্ম

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন উপজেলার বাহাপুর গ্রামের ফজলুর রহমানের ছেলে নুর আলম (৩৫), মদনসিংহ গ্রামের আবদুল গনির ছেলে সাকিব হাসান (২৯), পিছলি মধ্যপাড়া গ্রামের মকবুল হোসেনের ছেলে ইমরান (২২), মানিকরা গ্রামের আজিজুল হকের ছেলে কামাল হোসাইন (২৬), জয়পুর গুচ্ছগ্রামের মোজাফফর রহমানের ছেলে শাহিন আলম (২৬), মানিকরা গ্রামের আব্দুল হকের ছেলে আরিফুল ইসলাম (২৭), খুদ রামবাটি গ্রামের নুর ইসলামের ছেলে মতিউর রহমান (২৮), সৈয়দপুর গ্রামের ফারুক হোসেনের ছেলে রাশেদ মিলন (২৮), বৈদ্যপুর গ্রামের মুজাম্মেল হকের ছেলে আবদুল মাজেদ (২৮) ও পত্নীতলা উপজেলার সাড়াই ডাঙ্গা গ্রামের লোকমান আলীর ছেলে কাওসার মাহমুদ শান্ত (২৮)।

আরও পড়ুন: নাপা সিরাপে নয়, দুই শিশুর মৃত্যু বিষে

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানায়, জয়পুরহাট র‌্যাব ৫ ক্যাম্পের অপারেশনাল দল কোম্পানি অধিনায়ক লে. কমান্ডার মাসুদ রানার নেতৃত্বে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে বাজারে অভিযান চালিয়ে পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহ করার দায়ে ওই ১০ জনকে আটক করা হয়।

এ সময় ১২টি সিপিও, ১৬টি হার্ড ডিস্ক, ১২টি মনিটর, ৪টি মাউস, ৮টি কি-বোর্ড ও ৯টি বিভিন্ন ক্যাবল জব্দ করা হয়।

পরে তাদের সাপাহার থানায় পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইন-২০১২ অনুযায়ী মামলা করে গ্রেপ্তার দেখিয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আরও পড়ুন: চুলার  আগুনে ৫০  বিঘা পান বরজ পুড়ে ছাই

সাপাহার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি তারিকুর রহমান সরকার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আজ সকালে পর্নোগ্রাফির আসামিদের থানায় হস্তান্তর করেছে র‌্যাব-৫ জয়পুরহাট ক্যাম্প।

পরে আদালতে চালান করা হয় তাদের।

Leave a Reply