স্টাফ রিপোর্টার: নওগাঁর পত্নীতলায় নিজের বন্দুকের গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন ইয়াকুব আলী (৫৮) নামের ব্যক্তি। বুধবার (৩০ মার্চ) বেলা ১টার দিকে উপজেলার চেরাডাঙ্গা এলাকার নিজ বাড়ির ছাদে তার মরদেহ পাওয়া যায়।

নিহত ইয়াকুব আলী পেশায় অবস্থাপন্ন কৃষক ছিলেন। তার পরিবারও প্রতিষ্ঠিত।

পুলিশ বলছে, ইয়াকুব আলী আত্মহত্যা করেছেন। তবে এর কারণ জানাতে পারেনি পুলিশ।

আরও পড়ুন: সহয়তা পেলে উঠে দাঁড়াবেন প্রতিবন্ধী কালাম

পত্নীতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শামসুল আলম শাহ জানান, বাড়ির ছাদে মরদেহ পাওয়া গেছে। থুতনিতে গুলি লেগে মাথার খুলি ভেদ করে বেরিয়ে গেছে।

ধারণা করা হচ্ছে থুতনিতে বন্দুক ঠেকিয়ে নিজেই গুলি চালিয়েছেন ইয়াকুব আলী। মরদেহের পাশেই তার লাইসেন্স করা বন্দুক পাওয়া গেছে।

তবে কি কারণে ওই ব্যক্তি আত্মহত্যা করলেন-তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন: পত্নিতলায় স্কুল আছে রাস্তা নেই

ওসি আরও বলেন, বাড়ির ছাদে গুলির আওয়াজ পেয়ে নিহতের স্ত্রী মর্জিনা বেগম ছাদে যান। তিনি গিয়ে স্বামীকে মৃত অবস্থায় পান।

খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এনিয়ে অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে বলে জানান ওসি।

Leave a Reply