৯৯৯-এ কল দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ দেয়ায় সাজা

দেশজুড়ে ডেস্ক: জাতীয় জরুরি সেবা নম্বর-৯৯৯ এ কল দিয়ে স্ত্রী ধর্ষণের মিথ্যা অভিযোগ দেওয়ায় নোয়াখালী সদর উপজেলায় মো. আনোয়ার হোসেন (৩৫) নামের এক ব্যক্তির সাজা হয়েছে।

শনিবার (১২ নভেম্বর) দুপুরে জেলা চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করা হলে বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন। এর আগে শুক্রবার রাত দেড়টার দিকে উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়ন থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃত মো. আনোয়ার হোসেন সদর উপজেলার ধর্মপুর ইউনিয়নের দক্ষিণ শুল্লকিয়া গ্রামের মৃত আবুল কাসেমের ছেলে।

পুলিশ জানায়, শুক্রবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে উপজেলার শুল্লকিয়া গ্রামের আনোয়ার জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ এ ফোন করে। একপর্যায়ে তিনি জানান, তার স্ত্রী জেসমিন ধর্ষণের শিকার হয়েছে।

৯৯৯ এর মাধ্যমে এমন খবর পেয়ে সুধারাম থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এস আই) মাইনউদ্দিনসহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে যায়।

তারা গিয়ে জানতে পারে এ ধরনের কোনো ঘটনা ঘটেনি। পরে আনোয়ার স্বীকার করেন তিনি মজা করার জন্য এমন কল করেছিলেন।

সুধারাম মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আনোয়ারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আনোয়ার আগেও ৯৯৯ ফোন করে এ রকম মিথ্যা তথ্য দিয়ে, পুলিশকে হয়রানি করেছেন।

মিথ্যা তথ্য দিয়ে পুলিশকে হয়রানি করায় তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়। বিচারক তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. শহীদুল ইসলাম বলেন, জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ সরকারের একটি মহৎ উদ্যোগ।

আমরা গুরুত্বের সাথে কলগুলোর আলোকে ব্যবস্থা গ্রহণ করি। ইদানিং কল দিয়ে মিথ্যা তথ্য দেওয়ার ঘটনা বেশি ঘটছে। তাই তাদের বিরুদ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে।

Leave a Reply