বাগমারায় প্রশ্নফাঁসকারী চক্রের ৮ সদস্য গ্রেপ্তার

স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাগমারায় প্রশ্নফাঁসকারী চক্রের ৮ সদস্য গ্রেপ্তার হয়েছেন। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর) বিকেলে উপজেলার ভবানীগঞ্জ থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে র‌্যাব।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- নওগাঁর পত্নীতলার চক ভবানী এলাকার মোরশেদুল আলম (৪৮), বাগমারার রামগুইয়া এলাকার মমিন মন্ডল (২১), জাকিরুল ইসলাম (৩৭), শামসুল ইসলাম (৪৫), উপজেলার -দানগাছি এলাকার দুলাল হোসেন (৪৮), -গুনিয়াডাঙ্গার শরিফুল ইসলাম (২৫), খালিশপাড়ার তোফায়েল হোসেন (৩৩) ও  নাটোরের নলডাডাঙ্গা এলাকার তৌহিদুল ইসলাম জনি (৩৩)।

এদের মধ্যে জাকিরুল ইসলাম, শামসুল ইসলাম ও তৌহিদুল ইসলাম জনি স্থানীয় আদর্শ টেকনিক্যাল এন্ড বিএম কলেজের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত।

র‌্যাব বলছে, মোরশেদুল আলম চক্রের হোতা। অন্যরা তার সহযোগী। পরীক্ষা চলাকালীন কেন্দ্র থেকে মোবাইলে প্রশ্নপত্রের ছবি তুলে এনে দিতেন কেউ। কেউ গাইড বই দেখে সমাধান করতেন। পরে স্বল্প মূলে পরীক্ষা কেন্দ্রে বিভিন্ন মাধ্যমে সরবরাহ করতেন।

অভিযানে এই চক্রের কাছে এইচএসসির একসেট মূল প্রশ্নপত্র, ফাঁস করা প্রশ্নের ২০০ সেট উত্তর, ৫টি গাইড বই এবং দুটি ফটোকপি মেশিন জব্দ করেছে র‌্যাব। এনিয়ে বাগমারা থানায় মামলাও হয়েছে।

র‌্যাব জানিয়েছে, ভবানীগঞ্জে চলমান এইচএসসি (বিএমটি/বিএম) পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের গোপন তথ্য ছিল র‌্যাবের কাছে। এনিয়ে ছায়া তদন্ত শুরু করে র‌্যাব-৫, সিপিএসসি টিম। বৃহস্পতিবার (১৭ নভেম্বর)  বিএমটি/বিএম শাখার হিসাব বিজ্ঞান পরীক্ষা চলছিল। এসময় অভিযান চালিয়ে চক্রের ৮ সদস্যকে হাতেনাতে গ্রেপ্তার করা হয়।

র‌্যাব আরও জানায়, চলমান পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেছেন গ্রেপ্তারকৃতরা। দীর্ঘদিন ধরে তারা  এসএসসি/এইচএসসিসহ বিভিন্ন পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসেও নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা স্বীকার করেন।

Leave a Reply