৫ টাকায় স্যানিটারি ন্যাপকিন মিলবে এ মাসেই

56

নারী ও শিশু ডেস্ক: এ মাসেই বাজারে পাওয়া যাবে পাঁচ টাকা মূল্যের স্যানিটারি ন্যাপকিন। দাতব্য সংস্থা ‘বিদ্যানন্দ’ সাশ্রয়ী এই ন্যাপকিন বাজারে আনছে।

এছাড়াও নিম্ন-আয়ের মানুষের জন্য ৩ লাখ ন্যাপকিন বিনামূল্যে সরবরাহ করা হবে বলে জানিয়েছে সংস্থাটি। 

বিদ্যানন্দের প্রতিষ্ঠাতা কিশোর কুমার দাশ জানান, ২০১৭ সালের জানুয়ারিতে তারা কমমূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বাজারে আনার পরিকল্পনা নেন।

‌তখন থেকেই আমরা প্যাডের নকশা নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছি। প্রাথমিকভাবে আমরা নিজেদের নকশায় উৎপাদনে যাওয়ার পরিকল্পনা নেই, কিন্তু সেটি আরও বেশি মানানসই করার জন্য বাইরে থেকে ডিজাইন নেওয়া হয়। 

প্রথম ৩ লাখ স্যানিটারি ন্যাপকিন প্রস্তুতের জন্য ৩ লাখ টাকার তহবিল এর মধ্যেই সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান বিদ্যানন্দের প্রতিষ্ঠাতা। 

প্রকল্পের সমন্বয়কারী সালমান খান এ বিষয়ে বলেন, ১২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে আমাদের পণ্য বাজারে ছাড়ার বিষয়ে আমরা আশাবাদী। যে ৩ লাখ প্যাড বিনামূল্যে বিতরণ করা হবে তার মধ্যে কমপক্ষে ১ হাজার প্যাড শুরুর দিনে কিশোরী ও কম বয়সী নারী, বিশেষ করে যারা ঢাকার বিভিন্ন বস্তিতে বাস করে তাদের মাঝে বিতরণ করা হবে।  

সালমান আরও জানান, প্রতিটি প্যাড প্রস্তুতে ৭ টাকা করে খরচ হচ্ছে। বাড়তি অর্থ বিদ্যানন্দ বহন করছে। পাঁচজন শ্রমিকের একটি দল দিনে ৫০০-এর মতো প্যাড উৎপাদন করতে পারে বলে জানান তিনি। 

ন্যাশনাল হাইজিন বেসলাইনের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বাংলাদেশের শহর অঞ্চলে মাত্র ৩৩ শতাংশ নারী একবার ব্যবহার করা যায় এমন স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার করেন। বাজারে আট পিসের এক প্যাকেট এমন ন্যাপকিনের দাম ৭০ থেকে ২৫০ টাকা পর্যন্ত।  

বাংলাদেশে ৪০০ কোটি টাকার স্যানিটারি ন্যাপকিনের বাজার রয়েছে বলে জানা গেছে। আর প্রতি বছর ২০ শতাংশ করে এই বাজারের সম্প্রসারণ হচ্ছে বলেও জানা গেছে।  

আপনার মন্তব্য