[email protected] মঙ্গলবার, ২৭শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ই ফাল্গুন ১৪৩০

ইংরেজি গ্রামারে ভুল

ছাত্রকে ৬০ চড় শিক্ষিকার

বিদেশ ডেস্ক

প্রকাশিত:
১২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১৪:২৬

প্রতীকী ছবি

ইংরেজি গ্রামারে ভুল করায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রকে ৫০ থেকে ৬০টি চড় মারার অভিযোগ উঠেছে  এক গৃহশিক্ষিকার বিরুদ্ধে। কলকাতার গড়িয়ার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রায় ৭০ বছরের শিক্ষিকা ও তার ছেলের বিরুদ্ধে গত ৪ ফেব্রুয়ারি একটি থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রের মা। ভারতীয় দণ্ডবিধির তিনটি এবং জুভেনাইল জাস্টিস অ্যাক্টের একটি ধারায় মামলা দায়ের হয়েছে। এদিকে অভিযোগটি অস্বীকার করেছেন ওই শিক্ষিকা।

এছাড়া ওই ছাত্রের মা দক্ষিণ ২৪ পরগনা চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির চেয়ারপার্সন অনিন্দিতা বন্দ্যোপাধ্যায় টামটার কাছেও অভিযোগ দিয়েছেন।

অভিযোগ বলা হয়, ইংরেজি গ্রামারে ভুল করায় গত ৩ ফেব্রুয়ারি ছাত্রটিকে ৫০-৬০টি চড় মারেন শিক্ষিকা। থুতনি চেপে ধরেন তিনি। এ সময় ছাত্রকে শিক্ষিকার ছেলেও মোবাইলের চার্জার দিয়ে মারধর করেন। তার কাছে কম্পিউটার শেখে ১১ বছরের ছাত্রটি।

পুলিশ ও জেলা চাইল্ড ওয়েলফেয়ার কমিটির কাছে ভুক্তভোগী ছাত্রের মা দাবি করেন, ২৮ জানুয়ারি ওই শিক্ষিকার কাছে পরীক্ষায় কম নম্বর পায় ছাত্রটি। ৩ ফেব্রুয়ারি পড়তে গেলে তাকে মারধর করা হয়। ছাত্রের গালে ও কানের পাশে রক্ত জমাট বেঁধে যাওয়ায় তাকে সুভাষগ্রাম হাসপাতালে নিয়ে যায় পরিবার।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করে ওই শিক্ষিকা বলেন, ২২ বছরের গৃহশিক্ষকতার জীবনে এমন অভিযোগ কেউ করেনি। ইংরেজিতে ভুল করায় বকুনি দিয়েছিলাম, মারধর করিনি। ৫০-৬০টি চড় মারার মতো শারীরিক সক্ষমতা আমার নেই।

তার ছেলে জানান, আদালতে আগাম জামিনের আবেদন জানিয়েছেন তারা।

সংশ্লিষ্ট থানার কর্মকর্তা বলেন, মামলা রুজু করা হয়েছে। নোটিস পেয়ে থানায় এসে শিক্ষিকা ও তার ছেলে বয়ান রেকর্ড করেছেন। ছেলেটির ডাক্তারি পরীক্ষার কাগজ দেখে আইন মোতাবেক পরবর্তী পদক্ষেপ হবে।

বরেন্দ্র এক্সপ্রেস/এফএস


মন্তব্য করুন:

সম্পর্কিত খবর