প্রকাশ্যে প্রেমিকাকে মারধর, ধুনট থানার এএসআই ক্লোজ

29
থানায় ডেকে নিয়ে নারীকে পেটালেন এএসআই

বগুড়া: প্রেমিকাকে মারধর করায় বগুড়ার ধুনট থানায় কর্মরত শাহানুর রহমান নামে এক এএসআইকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়েছে। শুক্রবার বিকেলে পুলিশ সুপার তাকে ক্লোজ করার নির্দেশ দেন।
 

ওই পুলিশ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ধুনট থানা ও হাসপাতাল গেটের সামনে কোহিনুর বেগম নামে এক নারীকে মারধর করেন। বিষয়টি স্থানীয়রা টের পেয়ে এগিয়ে এসে ওই নারীকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করেন।
 

ওই নারী জানান, তিনি স্বামী পরিত্যক্তা। বাড়ি বগুড়া শহরের বউবাজার এলাকায়। বাবার নাম জবেদ আলী। ২০০৯ সালে বগুড়া আদালতে পরিচয় হয় পাবনা জেলার বাসিন্দা এএসআই শাহানুর রহমানের সঙ্গে। এরপর তাদের মধ্যে ভালোবাসার সর্ম্পক গড়ে ওঠে।

এক পর্যায়ে শাহানুর রহমান তিন বছর আগে ধুনট থানায় বদলি হন। এরপর তাদের সম্পর্ক আরও গভীর হয়। কিছুদিন আগেও শাহানুর রহমান তার সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করলে তিনি বাধ্য হয়ে ধুনট থানায় যান। সেখানে শাহানুর রহমান ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে মারধর করেন।
 

ওই নারীর সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টি স্বীকার করে শাহানুর রহমান বলেন, ওই নারী আমাকে মাঝেমধ্যেই নির্যাতনের মামলা করার হুমকি দেন। তাই তাকে দু’দফায় ৮৭ হাজার টাকা দিয়ে সর্ম্পক চুকে দেই। কিন্তু তারপরই সে যোগাযোগ করার চেষ্টা করে।
 

এদিকে খবর পেয়ে বগুড়ার পদোন্নতিপ্রাপ্ত পুলিশ সুপার মকবুল হোসেন ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ধুনট-শেরপুর সার্কেল) গাজিউর রহমান ঘটানাস্থলে যান।

তারা জনসম্মুখে ওই নারীকে মারধরের বিষয়টি নিশ্চিত হন। পরে শাহানুর রহমানকে পুলিশ লাইনে ক্লোজ করা হয়।
 

ধুনট থানার ওসি ইসমাইল হোসেন এএসআই শাহানুর রহমানকে ক্লোজের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আপনার মন্তব্য