করোনায় সোনালী ব্যাংক কর্মকর্তা মৃত্যু

26

দেশজুড়ে ডেস্ক: কোভিড–১৯ রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন সোনালী ব্যাংকের সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার (এসপিও) মাহবুব এলাহী। রোববার রাতে কুমিল্লায় মারা যান তিনি। এক সপ্তাহ আগে তার দেহে করোনাভাইরাস পজিটিভ ধরা পড়ে।

তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সোনালী ব্যাংকের লোকাল অফিসের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. মনিরুজ্জামান। তিনি বলেন, কুমিল্লায় নিজ বাড়িতে মারা গেছেন মাহবুব এলাহী। তিনি সোনালী ব্যাংক মতিঝিল শাখার চালান সেকশনের কর্মকর্তা ছিলেন।

এ নিয়ে চার ব্যাংকারের মৃত্যু হল এই মহামারীতে।মাহবুরের আগে মারা গেছেন সিটি ব্যাংকের দুই কর্মকর্তা ও রুপালী ব্যাংকের এক কর্মকর্তা।

জানা গেছে, সোনালী ব্যাংকের মতিঝিল কার্যালয়ে কর্মরত ছিলেন মাহবুব এলাহী। করোনার উপসর্গ দেখা দেয়ায় ৭ মে ছুটি নিয়ে কুমিল্লায় নিজ বাড়িতে চলে যান তিনি। ১০ মে পরীক্ষায় তার করোনা পজেটিভ ধরা পড়ে। কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি হয়ে কয়েক দিন চিকিৎসা নিয়ে বাড়ি চলে যান। রোববার রাতে তিনি নিজ বাড়িতেই মারা যান।

কুমিল্লা নগরীর মৌলভীপাড়া রহিম আমজাদ কায়সারের ছেলে মাহবুব এলাহী।

তার এক মাস বয়সী একটি মেয়ে রয়েছে।মেয়েসহ তার স্ত্রী চিকিৎসার জন্য ভারতের চেন্নাইয়ে রয়েছেন।

মাহবুব করোনায় আক্রান্ত হওয়ার এক সপ্তাহ আগে পদোন্নতি পেয়ে সিনিয়র প্রিন্সিপাল অফিসার হন।পদোন্নতির সুবিধা ভোগ করতে পারলেন না এই ব্যাংকার। তার মৃত্যুতে সোনালী ব্যাংকের কর্মকর্তারা সমবেদনা ও শোক প্রকাশ করেছেন।

সোমবার সকালে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাহবুব এলাহীর দাফন সম্পন্ন করা হয়।

ব্যাংকটির কর্মকর্তারা জানান, সোনালী ব্যাংকের আরও ২৯ জন কর্মকর্তা করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন। করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের পর সাধারণ ছুটি শুরু হলেও ব্যাংক খোলা রাখার সিদ্ধান্ত দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। সরকারি বেতন–ভাতা প্রদানের কারণে সোনালী ব্যাংকে সব সময় ভিড় লেগে আছে। এতে ব্যাংকটির কর্মকর্তাদের সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি থেকে যাচ্ছে।

আপনার মন্তব্য