নুসরাতের শোকে হাসপাতালে ভাই রায়হান

15
নুসরাতের শোকে হাসপাতালে ভাই রায়হান

দেশজুড়ে ডেস্ক: কথায় আছে- অল্প শোকে কাতর, অধিক শোকে পাথর। আর অধিক শোকে পাথর হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হলেন নুসরাত জাহান রাফির ছোট ভাই রাশেদুল হাসান রায়হান। প্রিয় বোনের অসহ্য মৃত্যু যন্ত্রণা আর অতীত স্মৃতি কোনোভাবেই ভুলতে পারছে না রায়হান।

শুক্রবার রাতে ভাই রায়হানকে ফেনীর একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পরিবার সূত্র জানায়, শুধু বুক চাপড়িয়ে চাপড়িয়ে কান্না করছে রায়হান। চোখের জল শুকিয়ে গেছে। খাওয়া-ধাওয়া ছেড়ে দিয়েছে। রাফির জানাজার পূর্ব থেকে বারবার জ্ঞান হারিয়ে ফেলায়। জ্ঞান ফিরলে রাফিকে খুঁজছে। প্রিয় বোন রাফির অতীত স্মৃতিগুলো যেন ভুলতেই পারছে না রায়হান।

নুসরাতের মৃত্যুতে সবচেয়ে বেশি শোকাহত হয়েছে ছোট ভাই রায়হান। মাত্র দুই বছরের বড় নুসরাতের সঙ্গে মাদ্রাসায় যাওয়া-আসা করত। সে ওই মাদ্রাসার দশম শ্রেণির ছাত্র। অনেকটা সমবয়সী বলে ভাইবোনের মধ্যে খুনসুটি লেগেই থাকত।

প্রসঙ্গত ৬ এপ্রিল ফেনীর সোনাগাজীতে পরীক্ষাকেন্দ্রের ভেতর ওই ছাত্রীর গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে হত্যাচেষ্টা চালায় দুর্বৃত্তরা।

শনিবার সকালে সোনাগাজী পৌর এলাকার ইসলামিয়া সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসাকেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে। ওই ছাত্রী ওই মাদ্রাসা থেকেই আলিম পরীক্ষা দিচ্ছিলেন।

পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত কক্ষ থেকে ছাদে ডেকে নিয়ে কয়েকজন বোরকাপরা নারী পরিকল্পিতভাবে তাকে হত্যার চেষ্টা করে বলে অভিযোগ করেছেন ওই শিক্ষার্থীর পরিবারের সদস্যরা।

তারা জানান, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা সিরাজউদ্দৌলার বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগে করা মামলা তুলে না নেয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। এ তথ্য ফেনী সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন স্থানীয় পুলিশকেও জানিয়েছেন নুসরাত।

তার অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় এদিন বিকালে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের ১০২ নম্বর কক্ষে ভর্তি করা হয়। পরে তাকে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) ভর্তি করা হয়। তাকে লাইফসাপোর্ট দেয়া হয়। এর পর না ফেরার দেশে চলে যান মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি।

আপনার মন্তব্য