প্রেমিকার গলায় প্রেমিকের ‘শুক্রাণু ভারা লকেট’!

117

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রেমিকের ‘শুক্রাণু ভারা লকেট’ নাকি গলায় ঝুলিয়েছেন প্রেমিকা! এমনই অবাক কাণ্ড ঘটিয়েছেন মার্কিন এক নারী।

প্রেমে পড়লে মানুষ কতো কিছুই না করেন। অনেকেই ভালোবাসার মানুষের ছবি নেকলেসের লকেটে রাখেন। অনেকে আবার ভালবাসার মানুষটির নামের অক্ষর ঝোলান নেকলেসে। 

মার্কিন সেই নারী শুক্রানুর লকেটের ছবি পোস্ট করেছেন সোশ্যাল সাইটেও। সেই ছবি এখনো নেটিজেনদের নতুন আলোচনার বিষয়। 

যদিও টুইটার ইতিমধ্যেই ছবিটিকে ‘সেন্সেটিভ কন্টেন্ট’ এর আওতাভুক্ত করেছে। ফলে সহজে দেখা যাচ্ছে না ছবিটি।

টেক্সাসের ওই নারীর মতে, প্রেমিককে তিনি প্রচণ্ড ভালবাসেন। তাই তিনি সব সময়ই প্রেমিকের শরীরে একটি অংশ নিজের কাছে রাখতে চাইতেন। সেই থেকেই এই ভাবনা তার মাথায় আসে।

প্রেমিকের শুক্রাণু একটি পাত্রে ভরে সেটি গলায় পরতে শুরু করেন তিনি। ভালবাসার চিহ্ন স্বরূপ সেই নেকলেসের ছবিও তিনি পোস্ট করেন সোশ্যাল মিডিয়াতেও।

শুক্রাণু ভরা লকেটের ছবিটি ওই নারী পোস্ট করেছিলেন গত মাসের প্রথম দিকে। ‘কান্ট্রিস্পিস’ নামে টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে সেটি পোস্ট করা হয়েছিল।

সেই লকেটের ছবি পোস্ট করার পর নেট দুনিয়ার চর্চার অন্যতম বিষয় হয়ে দাঁড়ায় এই স্পার্মের নেকলেস। অনেকে ওই নারীর কাণ্ডকারখানার তীব্র নিন্দা করে বলেছেন, প্রেমিককে যদি তিনি অতটাই ভালবাসেন, তাহলে তার ছবি দেওয়া লকেট পরতে পারতেন।

নিজের পার্সেও রাখতে পারতেন প্রেমিকের ছবি। কিন্তু এ আবার কী কাণ্ড! শুক্রাণু দিয়ে তিনি কিনা লকেট তৈরি করলেন! তার ছবি আবার পোস্টও করলেন টুইটারে! গোটা ব্যাপারটাই অত্যন্ত ঘৃণ্য বলে মন্তব্য করেন তারা।

অনেকে আবার ওই নারীর পাশে দাঁড়িয়ে বলেছেন, এটি নিতান্তই ওই নারীর ব্যক্তিগত ব্যাপার। এরমধ্যে নাক না গলানোই ভাল।

তবে সব থেকে বেশি চলছে হাসিঠাট্টা। নেটিজেনরা বিষয়টির মধ্যে হাসির খোরাক পেয়েছেন। যদিও এসব নিয়ে মোটেও মাথা ঘামাতে রাজি নন ওই নারী। তিনি ওই শুক্রাণুবন্দি নেকলেস নিয়ে বেজায় খুশি।

আপনার মন্তব্য