ভূতের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে নারী!

53

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: কোন মানুষ নয়, ভূতের সাথে বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন আয়ারল্যান্ডের এক নারী।

সম্প্রতি অদ্ভুত এই বিয়ে সম্পন্ন করেন আমান্ডা তেগ নামের পঁয়তাল্লিশ বছর বয়সি ওই নারী।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে জীবন সঙ্গী খুঁজছিলেন আমান্ডা। 

অনেক খোঁজাখুজির পরও যখন মনের মতো কারো দেখা পাননি তখন সঙ্গী হিসেবে বেছে নিয়েছেন তিনশ বছর আগে মারা যাওয়া জ্যাক স্পারো নামের এক জলদস্যুর ভূতকে। 

ঘটনার শুরু ২০১৪ সালের এক রাতে। প্রতিদিনের মতো আমান্ডা রাতের খাওয়া সেরে বিছানায় শুয়ে ছিলেন। হঠাৎ তিনি অনুভব করলেন তার পাশে কেউ একজন শুয়ে আছে।

প্রথমে চমকে গেলেও পরক্ষণেই নিজেকে সামলে নেন যখন জ্যাকের আত্মা তার সঙ্গে কথা বলা শুরু করে। এরপর গত চার বছর তারা চুটিয়ে প্রেম করেছেন, একে অপরকে জেনেছেন।

কথাগুলো বানানো কাহিনী মনে হলেও আমান্ডার কছে তা জেনো চির সত্য। ভূত স্বামীকে নিয়ে দিব্যি সুখে শান্তিতে ঘর সংসারও করছেন এখন।
 

নিজের বিয়ে নিয়ে সংবদামধ্যমে দেয়া সাক্ষাৎকারে আমান্ডা বলেন, সে আমার আত্মার আত্মীয়। তাকে নিয়ে আমি সুখে আছি। যারা অলৌকিক সম্পর্কে বিশ্বাস করেন না তাদের জন্য আমার এই বিয়ে একটা বার্তা।
 

আপনার মন্তব্য