সঙ্গীর ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের ভিডিও প্রকাশে ৫ বছরের সাজা

7
সঙ্গীর ঘনিষ্ঠ দৃশ্যের ভিডিও প্রকাশে ৫ বছরের সাজা
আন্তর্জাতিক ডেস্ক: প্রেমিকা কিংবা স্ত্রীর সঙ্গে সম্পর্কে শেষ হয়ে গেলে তাকে অনেকে ‘শত্রু’ ভাবেন। ব্যক্তিগত অনেক তথ্য ফাঁস করে দেন। কিন্তু সিঙ্গাপুর সরকার আইন করে প্রাক্তন সঙ্গীর কোনো ব্যক্তিগত ভিডিও কিংবা ছবি অনলাইনে প্রকাশ করাকে আইনগতভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে।

ইন্টারনেটের এই উন্মুক্ত দুনিয়ায় মানুষের শোয়ার ঘর পর্যন্ত এখন আর ব্যক্তিগত নেই। তবে সম্পর্কের পতনের পর অনলাইনে ব্যক্তিগত ঘনিষ্ঠ মুহূর্ত শেয়ার করেন ব্যক্তিগত ক্ষোভ থেকে। যার কারনে বেশি বিপদে পড়েন নারীরা।

প্রাযুক্তিক উৎকর্ষতার এই যুগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে। তাই যখন প্রাক্তন প্রেমিক বা স্বামী ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি ইন্টানেটে একবার প্রকাশ করে তখন দ্রুত সেটা ছড়িয়ে পড়ে। যা ভুক্তভোগীকেকে নানারকম সমস্যার মুখে ঠেলে দেয।

সিঙ্গাপুর সরকার এমন সমস্যার কথা বিবেচনায় নিয়ে বিশ্বের আরও বেশ কিছু দেশের মতো এই অপরাধ দমন করতে আইন প্রণয়ন করলো। কেউ যদি এখন থেকে এরকম কাজ করে তবে তাকে দেশটির সদ্যপ্রণীত আইন অনুযায়ী দণ্ড ভোগ করতে হবে।

সিঙ্গাপুরের পার্লামেন্ট গত সোমবার এ সংক্রান্ত একটি বিল পাস করে। সঙ্গীর সাথে সম্পর্ক ছেদ হওয়ার পর ব্যক্তিগত ছবি এবং ভিডিও প্রকাশ করার এরকম ঘটনাকে পার্লামেন্টে সর্বসম্মতিক্রমে অপরাধ হিসেবে অভিহিত করা হয়।

আর আইন অনুযায়ী এমন অপরাধের সাজা হিসেব সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের কারাদণ্ড ও জরিমানা করা যাবে। তাছাড়া দেশটির পুরনো অনেক ফৌজদারি আইনেরও পরিবর্তন করে দেশটির পার্লামেন্ট।

দেশটির আইন ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কে সানমুগান বলেন, ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি ইন্টারনেটে একবার শেয়ার করা হলে তা মুছে ফেলা অসম্ভব। আর এর কারণে ভূক্তভোগির বড় ধরনের ক্ষতি হয়। সেটা বিবেচনায় নিয়ে এমন আইন।

আরও পড়ুন:

সঙ্গি পরকীয়ায় জড়ালে যা করবেন

দাম্পত্য সম্পর্ক বলে দেবে ঘুমের ভঙ্গি

জেনে নিন যৌন আসক্তি বলতে সত্যিই কিছু আছে কী?

আপনার মন্তব্য