জোড়া খুনে এমপিপুত্র রনির যাবজ্জীবন

26
এমপি পূত্র রনি

জাতীয় ডেস্ক: রাজধানীর নিউ ইস্কাটনে জোড়া খুনের মামলায় আওয়ামী লীগের নেত্রী ও সংরক্ষিত নারী আসনের সাবেক এমপি বেগম পিনু খানের ছেলে বখতিয়ার আলম রনির যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

একইসঙ্গে তাকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড ও অনাদায়ে ৬ মাস কারাভোগ করতে হবে। বুধবার ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ মঞ্জুরুল ইমাম এই রায় দেন।

আদালত বলেন, ‘বখতিয়ার আলম রনির পিস্তল থেকে ছোড়া গুলিতে দুটি নিষ্পাপ প্রাণ ঝরে গেছে, এর দায় আসামি এড়াতে পারেন না। তাই আসামিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হলো। ’

রায় ঘোষণার আগে আসামি বখতিয়ার আলম রনিকে দুপুর ২টা ৫৫ মিনিটে আদালতে আনা হয়।

এর আগে গত বছরের ৮ মে ও ৪ অক্টোবর দুই দফায় রায়ের দিন ধার্য করা হলেও তা পিছিয়ে যায়।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ১৩ এপ্রিল গভীর রাতে নিউ ইস্কাটন এলাকায় মদ্যপ অবস্থায় নিজের গাড়ি থেকে এলোপাতাড়ি গুলি ছোড়ে রনি। এতে রিকশাচালক আব্দুল হাকিম ও অটোরিকশাচালক ইয়াকুব আলী আহত হন।

পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ১৫ এপ্রিল আব্দুল হাকিম এবং ২৩ এপ্রিল ইয়াকুব আলী মারা যান। এ ঘটনায় নিহত আব্দুল হাকিমের মা মনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে রমনা থানায় অজ্ঞাতপরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা করেন।

একই বছরের ২৪ মে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি) ওই মামলার তদন্তের দায়িত্ব পায়। তারা সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ৩১ মে এলিফ্যান্ট রোডের বাসা থেকে রনিকে গ্রেফতার করে। পরে ২০১৫ সালের ২১ জুলাই রনিকে একমাত্র আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক দীপক কুমার দাস।

২০১৬ সালের ৬ মার্চ রনির বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরু করেন ঢাকার দ্বিতীয় অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ সামছুন নাহার। মামলায় ৩৭ সাক্ষীর মধ্যে বিভিন্ন সময়ে ২৮ জন সাক্ষ্য দেন।

সূত্র: সমকাল

আপনার মন্তব্য