ডেঙ্গু রোধে ঈদের ছুটি শেষে বাসায় ফিরে যা করবেন

25
ডেঙ্গুজ্বরের যে ৪ লক্ষণ দেখলেই হাসপাতালে ভর্তি হওয়া জরুরি

জাতীয় ডেস্ক: ছুটি শেষে ঢাকায় ফিরতে শুরু করেছেন কর্মজীবী মানুষজন। কিন্তু মূর্তিমান আতঙ্ক হয়ে রয়েছে দেশজুড়ে মহামারি রুপ নেয়া ডেঙ্গু। 

ডেঙ্গুর বিস্তার রোধে এবার ঈদ শেষে রাজধানী ঢাকায় ফেরা লোকজনকে সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেয়ার পরামর্শ দিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর।
 

ঈদের ছুটিতে ঢাকায়  ফাঁকা বাসায় যাতে মশা নির্বিঘ্নে বংশবিস্তার করতে না  সেজন্য দেয়া হয়েছে নানান পরামর্শ।


যাদের বাড়িতে মশা মারার স্প্রে আছে

• একজন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ ব্যক্তি ঘরের প্রধান দরজা খুলে ঘরে ঢুকবেন এবং দরজা জানালা বন্ধ থাকা অবস্থায় ঘরের আনাচে-কানাচে, পর্দার পেছনে, খাটের নিচে স্প্রে করবেন।

• কোনোভাবেই শিশু, বয়স্ক ব্যক্তি বা গর্ভবতী নারী প্রথমে ঘরে ঢুকবেন না।

• মশা মারার ওষুধ স্প্রে করার পর প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি ঘর থেকে বেরিয়ে যাবেন ও আধা ঘণ্টা অপেক্ষা করবেন।

• আধা ঘণ্টা পর আবার ঘরে ঢুকে সব দরজা জানালা খুলে দেবেন।

• কমোড ফ্ল্যাশ করবেন, বেসিনের ট্যাপ ছেড়ে দেবেন।


যাদের বাড়িতে মশা মারার স্প্রে নেই

• সবাই একসঙ্গে ঘরে না ঢুকে প্রথমে একজন প্রাপ্তবয়স্ক সুস্থ ব্যক্তি ঘরে ঢুকে সব দরজা জানালা খুলে দেবেন।
 

• ফ্যানগুলো ছেড়ে দেবেন।
 

• কমোড ফ্ল্যাশ করবেন, বেসিনের ট্যাপ ছেড়ে দেবেন।
 

• এই কাজগুলো শেষ করার পর পরিবারের অন্য সদস্যরা ঘরে প্রবেশ করবেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের প্রতিবেদন অনুযায়ী, জানুয়ারি থেকে মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) পর্যন্ত ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সর্বমোট ৪৪ হাজার ৪৭১ জন। 

বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা শেষে এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন মোট ৩৬ হাজার ৮৮৪ জন। এ পর্যন্ত ৪০ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। 

বর্তমানে ঢাকায় ৪০টি সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে সর্বমোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৪ হাজার ১১৫ জন এবং ঢাকার বাইরে অন্যান্য বিভাগে মোট ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৩ হাজার ৪৩২ জন। 

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত নতুন রোগী ভর্তি হয়েছে ১ হাজার ২০০ জন।

আপনার মন্তব্য