বিশ্বকাপ জয়ী তরুণ তুর্কিদের সংবর্ধনা দেবে সরকার

17
বিশ্বকাপ জয়ী তরুণ তুর্কিদের সংবর্ধনা দেবে সরকার

জাতীয় ডেস্ক: অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপ জয়ী তরুণ তুর্কি আনুষ্ঠানিক সংবর্ধনা দেবে সরকার। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই গণসংবর্ধনা দেয়া হবে। 

সোমবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সমসাময়িক বিষয় নিয়ে ওই সংবাদ সম্মেলন আয়োজন ছিলো।

মন্ত্রিপরিষদ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর কথার রেশ ধরে ওবায়দুল কাদের বলেন, ভারত পরপর চার বার চ্যাম্পিয়ন, তাদের হারানো বেশ কঠিন ছিল। যখনই কেউ জিতে এসেছেন তখনই সংবর্ধনা দেয়া হয়েছে। গণসংর্বধনা ওদেরও দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সরকারপ্রধান।
 

ওবায়দুল কাদের বলেন,’ ঐতিহাসিক বিজয়ে আমাদের তরুণ টাইগারদের আন্তরিক অভিনন্দন জানাই। তাদের দুর্দান্ত পারফরমেন্সে ভারতের মতো বিশাল শক্তিকে পরাজিত করে বাংলাদেশ প্রথমবারের মতো বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। আজকের মন্ত্রিসভার বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে যে, এ বিজয় আমরা উদযাপন করবো।’
 

তিনি আরও বলেন, ‘বিজয়ী বীরদের গণসংবর্ধনা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। আমরা আশা করছি তারা ফিরে এলে সুবিধামত সময়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হবে। কারণ আমরা স্বাধীনতার পর এবারই বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছি।’
 

এ জয়ের পথ ধরেই একদিন বাংলাদেশ বিশ্বকাপও জিতবে এমন প্রত্যাশা করে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এ দূর্দান্ত পারফরমেন্স আমাদের প্রত্যাশা বাড়িয়ে দিয়েছে। বিশেষ করে অধিনায়ক আকবর যে ম্যাচিউরিটি প্রদর্শন করেছে ছয় উইকেট যাওয়ার পর আমরা তো ভাবিনি যে জিততে পারবো। এরপরও আকবরের নেতৃত্বে দলকে যেভাবে বিজয়ের স্বর্ণ দুয়ারে টেনে নিয়ে গেছে সেটা সত্যি একটা স্মরণীয় ঘটনা।’
 

গ্রাম থেকে খেলায়াড়দের তুলে আনতে তৃণমুল পর্যন্ত প্রশিক্ষণ জরুরি মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘এই যে বিশ্বকাপ বিজয়ের নায়ক ক্যাপ্টেন আকবর, তার বাড়ি কিন্তু পিছিয়ে পড়া কুড়িগ্রাম (প্রকৃতপক্ষে রংপুর); এ দলে আবার পঞ্চগড়ের খেলোয়াড়ও রয়েছে। আমাদের বিকেএসপিতে তৃণমূলের যে প্রশিক্ষণ সেটা চমৎকার। এখানেই নতুন-নতুন ক্রিকেটার সৃষ্টি হয়।’

রোববার মুজিব বর্ষের প্রাক্কালে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক ম্যাচে ভারতকে হারিয়ে আইসিসি অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে জয় লাভ করে বাংলাদেশ।

আপনার মন্তব্য