তানোরে মিনা দিবস পালিত

10

স্টাফ রিপোর্টার, তানোর : ‘মনের মতো স্কুল পেলে, শিখব মোরা হেসে খেলে’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে রাজশাহীর তানোর উপজেলায় মিনা দিবস পালিত হয়েছে।

মিনা দিবস উপলক্ষে উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস বিভিন্ন কর্মসূচী উদযাপন করেছে। ২৪ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টায় উপজেলা পরিষদ চত্বরে এক বর্ণাঢ্য র‌্যালী উপজেলার প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এরপর উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা, চিত্রাংকন প্রতিযোগিতা ও মাল্টিমিডিয়া মাধ্যমে কার্টুন প্রদর্শন অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরিন বানু’র সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিক্ষা কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) জুবাইদা খানমের উপস্থাপনায় আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান আবু বাক্কার প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, বিদ্যালয়ে যেতে সক্ষম শতভাগ শিশুর বিদ্যালয়ে ভর্তি নিশ্চিতকরণ এবং ঝরেপড়া রোধের লক্ষ্যকে সামনে রেখে মিনা দিবস উদযাপিত হয়। শিক্ষা ও স্বাস্থ্যবিষয়ক উন্নয়নের পাশাপাশি বাল্যবিয়ে, পরিবারে অসম খাদ্য বণ্টন, শিশুশ্রম রোধ প্রভৃতি বিষয়ে সচেতন করা ও কার্যকরী বার্তা পৌঁছানোর ক্ষেত্রে ‘মিনা’ চরিত্রটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে। মিড ডে মিলের থিম নিয়ে এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য হলো ‘মায়ের দেওয়া খাবার খাই, মনের আনন্দে স্কুলে যাই।’

জনপ্রিয় কার্টুন ‘মিনা’ নামের বালিকা চরিত্রটি মেয়ে শিশুদের অধিকার প্রতিষ্ঠায় সোচ্চার। ১৯৯১ সালে একজন ১০ বছর বয়সী বালিকা হিসেবে মিনা চরিত্রের সৃষ্টি। মিনা চরিত্রটি বাংলাদেশ, পাকিস্তান, ভারত, নেপাল তথা দক্ষিণ এশিয়ার মেয়ে শিশুদের প্রতিনিধিত্বকারী একটি বালিকা চরিত্র। ১৯৯৮ সাল থেকে দেশব্যাপী মিনা দিবস উদযাপন করছে সরকারি-বেসরকারি সংস্থা।

আপনার মন্তব্য