নির্বিঘ্ন ঈদ উদযাপনে যে নির্দেশনা দিলো আরএমপি

18

স্টাফ রিপোর্টার: আসন্ন পবিত্র ঈদ-উল আজাহা নিরাপদ ও নির্বিঘ্নে উদযাপনে নগরবাসীর প্রতি নানান নির্দেশনা দিয়েছে রাজশাহী মহানগর পুলিশ (আরএমপি)।

জনসচেতনতায় এনিয়ে গণবিজ্ঞপ্তিও জারি করেছে নগর পুলিশ। ঈদ ঘিরে নিজেদের প্রস্তুতিও সেরেছে আরএমপি।

গ্রামের বাড়িতে ঈদ করতে যাবার আগে বাসাবাড়িতে সঠিকভাবে তালাবদ্ধ করে যাবার নির্দেশনা দিয়েছে নগর পুলিশ। ফাঁকা বাড়িতে চুরি রোধে পাশাপাশি ভবনের বাসিন্দাদের সর্তক থাকার আহবান জানানো হয়েছে।

ঈদ যাত্রায় ট্রেন-বাসের মারাত্মক ভীড় এড়াতে ঈদ ভ্রমণ পরিকল্পনা সাজানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে। অতিরিক্ত যাত্রী হয়ে ট্রেন বা বাসের ছাদে ভ্রমণেও নিরুৎসাহিত করছে নগর পুলিশ। 

মহাসগড়কে নিষিদ্ধ যান নসিমন, করিমন, ভটভটিকে বিপদজ্জনক হিসেবে উল্লেখ করে এসব ভ্রমণে এসব যানবাহণ পরিহারের পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

ঈদের ছুটিকালীন নগরীর মার্কেট ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলো যথাযথভাবে তালাবদ্ধ রাখারও নির্দেশ দেয়া হয়েছে নগর পুলিশের তরফ থেকে। 

এছাড়া এসব প্রতিষ্ঠানে কলাপসিবল গেইট দ্বারা নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং নিজস্ব নিরাপত্তা প্রহরীর নিয়োগের তাগিদ দেয়া হয়েছে।

বোর্ডারদের তথ্য সংগ্রহ রাখার নির্দেশ দেয়া হয়েছে নগরীর আবাসিক হোটেলগুলোকে। এছাড়া সিসিটিভি ক্যামেরায় সঠিকভাবে ভিডিও ধারণ হচ্ছে কিনা তাও নিশ্চিত করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

যাত্রা পথে রেল স্টেশন ও বাস টার্মিনালে অপরিচিত কোন ব্যক্তির কাছ থেকে কোমল পানীয়, শরবত বা অন্য কোন খাবার গ্রহণে যাত্রীদের বিরত থাকার আহবান জানিয়েছে নগর পুলিশ।

 কোন ব্যক্তিকে অজ্ঞান পার্টি অথবা প্রতারক চক্রের সদস্য সন্দেহ হলে তাৎক্ষণিক নিকটস্থ আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের জানানোর পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

বড় অংকের অর্থ লেনদেনে ব্যবসায়ীদের সতর্কতা অবলম্বণের পরামর্শ দিয়েছে নগর পুলিশ। প্রয়োজনে পুলিশের সহায়তা নেয়ারও তাগিদ দেয়া হয়েছে। জাল নোট ঠেকাতেও সহায়তা নেয়া যাবে পুলিশের।

গুজব সৃষ্টিকারীদের বিষয়ে সবাইকে সর্তক থাকার পরামর্শ দিয়েছে আরএমপি। এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে দ্রুত নিকটস্থ পুলিশকে অবহিত করার আহবান জানিয়েছে।

অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সকল প্রকার অস্ত্রশস্ত্র বহন, আতশবাজি পোড়ানো, পটকা ফুটানো, বিস্ফোরক দ্রব্য বহন, সংরক্ষণ, ক্রয়-বিক্রয় এমনকি উচ্চস্বরে মাইকিং নিষিদ্ধ করেছে নগর পুলিশ। আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ারও ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

ঈদের জামায়াতে আগত মুসল্লীদের জায়নামাজ ব্যতীত অতিরিক্ত কোন কিছু সঙ্গে না আনার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে নগর পুলিশ। নির্ধারিত গেইট দিয়ে শৃঙ্খলা মেনে প্রবেশ এবং নামাজ শেষে সারিবদ্ধভাবে বের হবারও অনুরোধ জানিয়েছে।

নগর পুলিশের মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস গণমাধ্যমকে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, নিরাপদ ও নির্বিঘ্নে উদ্যাপনে নগরজুড়ে বিশেষ নিরাপত্তা পরিকল্পনা নিয়েছে নগর পুলিশ। জনসচেতনতায় জারি করা হয়েছে গণবিজ্ঞপ্তি।

আরএমপির তরফ থেকে থাকছে পুলিশ কন্ট্রোল রুম। সহায়তায় যে কেউ ০৭২১-৭৬০১৭০, ০১৭৬৯-৬৯০৫১৬ এবং ৯৯৯ (টোল ফ্রি) নম্বরে যোগাযোগ করতে পারেন। নগরীর নিরাপত্তায় সবার সর্বাত্মক সহায়তা চান এই নগর পুলিশ কর্মকর্তা।

আপনার মন্তব্য